Friday, April 19, 2024
spot_img
Homeখেলাধুলাহেড কোচ বিহীন টি-টোয়েন্টি, টেস্ট-ওয়ানডের দায়িত্বে ডমিঙ্গো

হেড কোচ বিহীন টি-টোয়েন্টি, টেস্ট-ওয়ানডের দায়িত্বে ডমিঙ্গো

টি-টোয়েন্টির কোচ নিয়ে নিজেদের সিদ্ধান্ত জানালো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এই ফরম্যাটের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে রাসেল ডমিঙ্গোকে। আজ এক সংবাদ সম্মেলনে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানান, টি-টোয়েন্টিতে আপাতত  আলাদা করে কোনো কোচ নিয়োগ দেয়া হচ্ছে না। তবে টেস্ট এবং ওয়ানডে ফরম্যাটের হেড কোচ থাকছেন ডমিঙ্গোই।

আজ মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে কোচিং স্টাফদের সঙ্গে বৈঠক শেষে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘রাসেল ডমিঙ্গো টি-টোয়েন্টিতে নয়, আমরা তাকে ওয়ানডে ও টেস্টের দায়িত্ব দিয়েছি। আমরা টি-টোয়েন্টিটা আলাদা করেছি। হেড কোচ বলতে (টি-টোয়েন্টি তথা এশিয়া কাপে) এখন পর্যন্ত কেউ নেই। এখানটায় আমাদের ব্যাটিং কোচ রয়েছে। আমাদের স্পিন কোচ, পেস বোলিং কোচ, ফিল্ডিং কোচ রয়েছে। আমাদের অধিনায়ক আছে। টি-টোয়েন্টিতে আমাদের টেকনিক্যাল পরামর্শক আছে একজন।

সে গেম প্ল্যান দেবে। যদি গেম প্ল্যান সে দেয়, তাহলে হেড কোচ আর কী করবে। প্রধান কোচের তো কোনো কাজ থাকে না।’

এশিয়া কাপে দলের সঙ্গে থাকবেন সদ্য নিয়োগ পাওয়া শ্রীধরন শ্রীরাম। তাকে টেকনিক্যাল পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে বিসিবি। গতকাল দুপুরে বিমানবন্দর থেকে সরাসরি মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে এসেছেন এই ভারতীয় কোচ। বাংলাদেশ দলের সঙ্গে এশিয়া কাপ থেকেই কাজ শুরু করবেন তিনি। বিসিবি’র সঙ্গে তার চুক্তি অক্টোবর-নভেম্বরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত। দলের সঙ্গে ব্যস্ত সময় পার করছেন ব্যাটিং পরামর্শক জেমি সিডন্সও।

ডমিঙ্গোকে যে টি-টোয়েন্টি থেকে সরিয়ে দেয়া হবে, গত সপ্তাহেই অনেকটা স্পষ্ট হয়ে গিয়েছিল। শ্রীরামকে নিয়োগ দেয়ার ঘোষণার সময় বিসিবি সভাপতি জানান, তিন ফরম্যাট নিয়ে আলাদাভাবে চিন্তাভাবনা করছে বোর্ড। নাজমুল হাসান পাপন বলেছিলেন, ‘‘আমাদের এখন পর্যন্ত চিন্তাভাবনা হচ্ছে- ওয়ানডে ও টেস্টে ডমিঙ্গোকে মনোযোগী হতে হবে। আমরা সবকিছু আলাদা করতে চাইছি। যে পরিমাণ খেলা, ডমিঙ্গোর পক্ষে এত কিছুতে মনোযোগ দেয়া সম্ভব নয়। তার সঙ্গে আমাদের যে চুক্তি তাতে অনেক সিরিজে সে যেতেই পারে না। বুঝতে হবে যে তার ছুটির একটা নির্দিষ্ট সময় আছে। এটা এত সহজ নয়।’

পাপন যোগ করেন, ‘যদি সম্ভব হয় তো কোচিং স্টাফও আলাদা করে ফেলবো। এশিয়া কাপ ও বিশ্বকাপে কী হয় দেখবো। তারপর একটা সিদ্ধান্তে পৌঁছাবো। শ্রীরামকে টি-টোয়েন্টিতে রাখা হবে নাকি অন্য কেউ আসবে সেটা পারফরম্যান্সের ওপর নির্ভর করবে।’

ধারণা করা হচ্ছে, শ্রীরামের কাজে ইতিবাচক ফল এলে তাকে টি-টোয়েন্টির হেড কোচ বানাতে পারে বিসিবি।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments