Tuesday, May 21, 2024
spot_img
Homeআন্তর্জাতিকসুদানের দারফুর অঞ্চলে তীব্র সঙ্ঘাত, অসংখ্য ব্যক্তি হতাহত

সুদানের দারফুর অঞ্চলে তীব্র সঙ্ঘাত, অসংখ্য ব্যক্তি হতাহত

সুদানের দারফুর অঞ্চলে জাতিসঙ্ঘের আফ্রিকান মিশনের (ইউএনএএমআইডি) অবকাঠামোগুলোতে বিভিন্ন সশস্ত্র সংগঠন ও সামরিক বাহিনীর মধ্যে তীব্র সঙ্ঘাতের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার এ সঙ্ঘাতের ফলে অনির্দিষ্ট সংখ্যক ব্যক্তি হতাহত হয়েছেন। সুদানের একটি সামরিক সূত্র এমন তথ্য জানিয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, শনিবার সুদানের দারফুর অঞ্চলে সাবেক আফ্রিকান ইউনিয়ন-জাতিসঙ্ঘের ইউএনএএমআইডি শান্তি মিশনের সদর দফতরের পরিসীমার মধ্যে তীব্র সঙ্ঘাতের ঘটনা ঘটে। এ সময় তীব্র বন্দুকযুদ্ধের শব্দ পাওয়া গেছে। উত্তর দারফুর অঞ্চলের এল ফাশার এলাকায় এ সঙ্ঘাতের ঘটনা ঘটে। কিন্তু, এ সঙ্ঘাতের ফলে কত ব্যক্তি হতাহত হয়েছেন তা এখনো জানা যায়নি।

২০২০ সালে থেকেই দারফুর অঞ্চলে সঙ্ঘাত ও বাস্তুচ্যুতের ঘটনা বেড়ে গেছে। সামরিক বিশেষজ্ঞরা ধারণা করছেন, সাবেক বিদ্রোহী সংগঠনগুলোর সাথে যে চুক্তি হয়েছিল তাকে কেন্দ্র করে দারফুর অঞ্চলে ক্ষমতার দ্বন্দ্ব বেড়েছে। যে বিদ্রোহী সংগঠনগুলোর সাথে চুক্তি হয়েছিল তাদেরই কতগুলো উপদল এখন ক্ষমতার দ্বন্দ্বে লিপ্ত হয়েছে। এছাড়া দারফুর অঞ্চলে ২০২১ সালের শুরু থেকে জাতিসঙ্ঘের ইউএনএএমআইডি শান্তি মিশনের কার্যক্রম বন্ধ থাকায় সঙ্ঘাত বেড়েছে।

জাতিসঙ্ঘের বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, দারফুর অঞ্চলের বিদ্রোহী সংগঠনগুলো লিবিয়াতে তাদের কার্যক্রম চালাচ্ছে। সংযুক্ত আরব আমিরাতের মাধ্যমে যে সকল চুক্তি হয়েছিল তার দ্বারা এসব বিদ্রোহী সংগঠনগুলো বিভিন্ন সুবিধা পাচ্ছে। লিবিয়াতে ভাড়াটে সেনা হিসেবে কাজ করার মাধ্যমে তারা প্রচুর অস্ত্র পাচ্ছে। এসব কারণে দারফুর অঞ্চলে যে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা ছিল তা অকার্যকর হয়ে গেছে এবং সঙ্ঘাত বেড়েছে।

সূত্র : আল-জাজিরা

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments