Wednesday, June 12, 2024
spot_img
Homeআন্তর্জাতিক৩৬ দেশের জন্য বন্ধ হলো রুশ আকাশসীমা

৩৬ দেশের জন্য বন্ধ হলো রুশ আকাশসীমা

ইউক্রেন আক্রমণের পর রাশিয়ার বিরুদ্ধে ইউরোপীয় ইউনিয়নের নিষেধাজ্ঞার জবাবে প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন আজ ৩৬টি দেশের বিমানের জন্য রাশিয়ার আকাশসীমা বন্ধের ঘোষণা দিয়েছেন। গতকাল ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য দেশগুলোর আকাশসীমা ব্যবহারে রাশিয়ার ওপর সম্মিলিতভাবে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। তার পরই রাশিয়া পাল্টা ব্যবস্থা নিল।

রুশ বিমান পরিবহন কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘আমরা নিম্নলিখিত ৩৬টি দেশের এয়ারলাইনসগুলোতে বিধি-নিষেধ আরোপ করছি : অস্ট্রিয়া, আলবেনিয়া, ইংল্যান্ড, বেলজিয়াম, ব্রিটিশ ভার্জিন দ্বীপপুঞ্জ, যুক্তরাজ্য, হাঙ্গেরি, জার্মানি, জিব্রাল্টার, গ্রিস, ডেনমার্ক, জার্সি, আয়ারল্যান্ড, আইসল্যান্ড, স্পেন, ইতালি, কানাডা, সাইপ্রাস, লাটভিয়া, লিথুয়ানিয়া, লুক্সেমবার্গ, মাল্টা, নেদারল্যান্ডস, নরওয়ে, পোল্যান্ড, পর্তুগাল, রোমানিয়া, স্লোভাকিয়া, স্লোভেনিয়া, ফিনল্যান্ড, ফ্রান্স, ক্রোয়েশিয়া, চেক প্রজাতন্ত্র, সুইডেন এবং এস্তোনিয়া।

সংস্থাটি আরো জানায়, এই দেশগুলোর এয়ারলাইনসগুলোকে কিছু নির্দিষ্ট প্রেক্ষাপটের ভিত্তিতে রাশিয়ার আকাশসীমা ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া যেতে পারে। তবে সে ক্ষেত্রে বিশেষ অনুমতির প্রয়োজন হবে।

নর্ডিক অঞ্চলে ইউক্রেনের ওয়েবসাইট ডাউন

সুইডেন, নরওয়ে এবং ডেনমার্কে ইউক্রেনের ওয়েবসাইটগুলো ডাউন হয়ে আছে। স্টকহোমে অবস্থিত ইউক্রেনের দূতাবাসেও ফোনে যোগাযোগ করা যাচ্ছে না। ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের পর আজ সোমবার এমন পরিস্থিতির কথা জানা যায়।
  
নরওয়ের রাজধানী অসলোতে ইউক্রেনীয় দূতাবাসে ইউক্রেনের রাষ্ট্রদূত ইরিনা রিয়াবতসজুক সংবাদ সংস্থা এনটিবিকে বলেছেন, এটি সম্ভবত হ্যাকারদের কাজ। ডেনমার্কে ইউক্রেনের দূতাবাসের ওয়েবসাইটটিও ভয়ংকর সাইবার হামলার কারণে বন্ধ রয়েছে বলে জানায় স্থানীয় সংবাদ সংস্থাগুলো। স্থানীয় সময় দুপুর আড়াইটায় স্টকহোমে ইউক্রেনীয় দূতাবাসে ফোন করে এবং তাদের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটের মাধ্যমে যোগাযোগ করা যায়নি বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে।

ফিনল্যান্ডে বন্ধ রুশ ভদকা বিক্রি

ইউক্রেনের যুদ্ধের কারণে ফিনল্যান্ডের সরকার দোকানে এবং অনলাইনে রাশিয়ার তৈরি ভদকা এবং অন্যান্য পণ্য বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছে। সরকারি এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আমরা দেখাতে চাই যে এটি একটি ব্যতিক্রমী এবং আপত্তিকর পরিস্থিতি এবং আমরা এটিকে গুরুত্বসহকারে নিয়েছি। বিভিন্ন জরিপেও দেখা যায়, গত বৃহস্পতিবার ইউক্রেনে রুশ আক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকে রাশিয়ার তৈরি অ্যালকোহল পণ্যে গ্রাহকদের চাহিদা কমে গেছে। ‘

বিবৃতিতে ফিনল্যান্ডের কর্তৃপক্ষ আরো বলেছে, ‘আমরা ঘটনার ওপর সতর্ক দৃষ্টি রাখছি এবং ফিনল্যান্ডের গ্রাহকদের প্রতিক্রিয়া অনুসরণ করছি। ফিনল্যান্ডবাসী প্রত্যেকেই কোনো না কোনোভাবে ইউক্রেনে উদ্ভূত পরিস্থিতিকে প্রভাবিত করতে চায়। তাদের মনোভাব বুঝেই সরকার রাশিয়ান ভদকাসহ বিভিন্ন পণ্য ক্রয়ের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। ‘

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments