বিশ্বের প্রায় ১৭টি দেশে করোনাভাইরাসের ভারতীয় ধরন পাওয়া গেছে। এ নিয়ে সচেতন থাকতে বলেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। সতর্ক না হলে ভয়াবহ পরিস্থিতি হতে পারে বলেও মন্তব্য করেছে সংস্থাটি। গতকাল মঙ্গলবার ডব্লিউএইচও এ তথ্য জানিয়েছে। মহামারির সাপ্তাহিক আপডেটে করোনার ভারতীয় ধরনের বেশিরভাগই ভারত, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র এবং সিঙ্গাপুর থেকে আপলোড করা হয়েছে। আর বাকি দেশগুলো হলো- অস্ট্রেলিয়া, বাহরাইন, জার্মানি, নিউজিল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, দক্ষিণ কোরিয়া, পর্তুগাল, বেলজিয়াম, সুইজারল্যান্ড, গ্রিস, নেদারল্যান্ডস, ইতালি ও কম্বোডিয়া। গতকাল মঙ্গলবার ডাটাবেসে এই তথ্য আপলোড করেছে এই ১৭ দেশ।

ভারতে করোনার যে প্রজাতিটি পাওয়া গিয়েছে সেটি হলো-‘বি.১.১৬৭’। নিজের বৈশিষ্ট্য পাল্টে মারাত্মক হয়েছে করোনাভাইরাসের নতুন এই স্ট্রেন। এটি টিকার প্রভাবকেও হার মানিয়ে দিচ্ছে। ভাইরাসের এই ধরনে ভারতে এখন ভয়াবহ অবস্থা বিরাজ করছে। প্রতিদিনই বাড়ছে মৃত্যু। হাসপাতালগুলো করোনা রোগীতে ভরে গেছে। দেখা দিয়েছে অক্সিজেন সঙ্কট। ডব্লিউএইচও বলছে, ক্রমশ চরিত্র পাল্টানো এই ভাইরাসের উপর গবেষণা চালিয়ে যেতে হবে।

সূত্র: বিজনেস স্টাডার্ড।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

English