Tuesday, May 21, 2024
spot_img
Homeবিজ্ঞান ও প্রযুক্তি১৬৫ বিলিয়ন ডলার খুইয়ে বিশ্বরেকর্ড

১৬৫ বিলিয়ন ডলার খুইয়ে বিশ্বরেকর্ড

করোনা মহামারিতে দ্রুত সম্পদ বানিয়ে বিশ্বের ১ নম্বর বিলিয়নেয়ারের তকমা ভাগিয়ে নিয়েছিলেন ইলন মাস্ক। এবার সম্পদও হারিয়েছেন দ্রুত এবং সবচেয়ে বেশি। এর মধ্য দিয়ে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসেও নাম লেখালেন টেসলার সিইও ইলন মাস্ক।

বার্তা সংস্থা বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০২১ সালের নভেম্বর থেকে ২০২২ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়ে ইলন মাস্ক হারিয়েছেন ১৬৫ বিলিয়ন ডলার, যা ব্যক্তির ক্ষেত্রে বিশ্বের সবচেয়ে বড় লোকসান হিসেবে অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। ফোর্বস ম্যাগাজিনের রিয়াল টাইম বিলিয়নেয়ার হিসাব থেকে এসব তথ্য গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের ব্লগ ওয়েবসাইটে উল্লেখ করা হয়েছে।

এই লোকসান কিন্তু রাতারাতি হয়নি। এর শুরুটা প্রকাশ্যে আসে গত বছরের ডিসেম্বর মাস থেকেই। বছর শেষে যখন ধনকুবেরদের তালিকা তৈরি হয়, সেই সময় মাস্ককে পেছনে রেখে প্রথম জায়গাটি দখল করেন ফরাসি সংস্থা এলভিএমএইচের প্রধান নির্বাহী বার্নার্ড আর্নল্ট। এর অন্যতম কারণ হলো ওই বছর থেকে পড়তে থাকে টেসলার শেয়ারের দাম। ২০২২ সালে টেসলার শেয়ারের দর পড়েছিল ৬৫ শতাংশ। ওই বছর মাত্র ১.৩ মিলিয়ন গাড়ি বিক্রি করতে পারে টেসলার।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০২১ সালের নভেম্বরে ইলন মাস্কের সম্পত্তি ছিল ৩২০ বিলিয়ন ডলার। কিন্তু ২০২২ সালের ডিসেম্বরে তা কমে দাঁড়ায় ১৫৫ বিলিয়ন ডলারে, নতুন বছরে তা আরো কমেছে। এ বছর বিশ্বের শীর্ষস্থনীয় পাঁচ ধনীর মধ্যে প্রথম স্থানে রয়েছেন এলভিএমএইচের প্রধান নির্বাহী বার্নার্ড আর্নল্ট। তাঁর সম্পদের পরিমাণ ২০৪ বিলিয়ন ডলার। দ্বিতীয় ইলন মাস্ক, তাঁর সম্পদ ১৪৬.৫ বিলিয়ন ডলার। তৃতীয় গৌতম আদানি। তাঁর সম্পদ ১২৪.৭ বিলিয়ন ডলার। চতুর্থ জেফ বেজস। তাঁর সম্পদ ১১৮.৩ বিলিয়ন ডলার। পঞ্চম ওয়ারেন বাফেট। সম্পদ ১১১ বিলিয়ন ডলার।

সূত্র : বিবিসি, এএফপি।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments