Sunday, March 3, 2024
spot_img
Homeখেলাধুলা১০ গোলের ভীতি ছাপিয়ে ভারতকে হারানোর তৃপ্তি সাইফুল বারীর

১০ গোলের ভীতি ছাপিয়ে ভারতকে হারানোর তৃপ্তি সাইফুল বারীর

ভুটানকে ১০ গোলে উড়িয়ে দুর্দান্তভাবে আসর শুরু করেছিল ভারত। তাতে মনে ভয় ধরেছিল বাংলাদেশের মেয়েদের। তার ওপর ভারত দলে ছিল অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপ খেলা চার ফুটবলার। এতে ভীতি আরো বেড়ে গিয়েছিল স্বাগতিক মেয়েদের।

কিন্তু সেই ভীতি কাটিয়ে সাইফুল বারীর শিষ্যরা ভারতকে হারিয়ে দিয়েছে ১-০ গোলে। পৌঁছে গেছে অনূর্ধ্ব-১৯ নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে। শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে মনে ভয় না রেখে নিজেদের খেলাটাই খেলতে বলেছিলেন সাইফুল বারী। তাতেই মিলেছে এমন দুর্দান্ত জয়।
প্রথমার্ধে বাংলাদেশের মেয়েরা সেভাবে নিজেদের মেলে ধরতে পারেনি। আক্রমণে এগিয়ে ছিল ভারতই। কিন্তু রক্ষণ দুর্গ আগলে রাখায় বিপদে পড়তে হয়নি। প্রথমার্ধ ভারতের মেয়েদের হলে দ্বিতীয়ার্ধ ছিল বাংলাদেশের।

আক্রমণে আধিপত্য দেখিয়ে গোলের আশা জাগাচ্ছিলেন বারবার। মনে হচ্ছিল এই বুঝি গোল পেয়ে যাবে। শেষ পর্যন্ত গোল এলো যোগ করা সময়ে। আফিদা খন্দকারের বাড়ানো লম্বা বল ভারতের অর্ধে পেয়ে বক্সে ঢুকে ঠাণ্ডা মাথায় বল জালে পাঠান সাগরিকা।মেয়েদের আত্মবিশ্বাস বাড়াতে এমন জয় খুব দরকার ছিল বলছেন সাইফুল বারী, ‘সব মিলিয়ে মেয়েরা খুশি।

ওদের একটু আত্মবিশ্বাসেরও দরকার ছিল, বিশেষ করে ভারত ১০-০ গোলে ভুটানকে হারিয়ে এসেছিল, আজ নেপালের ১-০ গোলে জেতায়…সব মিলিয়ে মেয়েদের মানসিকভাবে চাপ ছিল, ভারত আসলেই এত ভালো দল! ওটা থেকে বের হয়ে আসার দরকার ছিল। সেটা পারায় আত্মবিশ্বাস বাড়বে মেয়েদের।’প্রথমার্ধে ভালো খেললেও দ্বিতীয়ার্ধে ভারতের মেয়েরা ক্লান্ত হয়ে পড়ে। এই সুযোগই বাংলাদেশ কাজে লাগিয়েছে বলছেন সাইফুল বারী, ‘দ্বিতীয়ার্ধে ওরা আস্তে আস্তে একসময় গিয়ে ক্লান্ত হয়েছে। তখন আমাদের মেয়েরা সেই সুযোগটা নিয়েছে। আমি বলব মুনকি আক্তার চমৎকার একজন খেলোয়াড়। নাম্বার১০ বা ফলস ৯ বলি…ও আর সাগরিকা মিলে ওদেরকে বিপদে ফেলার চেষ্টা করেছে। তখন মেয়েদের বলেছি, একটু ডিরেক্ট পাস খেলতে। সব মিলিয়ে…যেমন জয়ের উদযাপন করতে নিষেধ করেছি। মেয়েদের বলেছি, এটা তো রাউন্ড রবিন লিগের ম্যাচ, ফাইনাল তো বাকি আছে।’ আগামী পরশু গ্রুপের শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ভুটান। ফাইনাল নিশ্চিত হওয়ায় ওই ম্যাচে নিয়মিত একাদশের বেশ কয়েকজনকে বিশ্রাম দেওয়ার কথা ভাবছেন বাংলাদেশ কোচ।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments