জেনারেল কাসেম সোলাইমানি হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার দায়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানের সামরিক বাহিনীর আজীবন টার্গেট হবেন। সারা জীবনই ট্রাম্প ইরানের সামরিক বাহিনীর টার্গেট হবেন বলে জানিয়েছেন ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আলী খামেনির একজন প্রতিনিধি।

রবিবার এক ট্রাম্পকে সতর্ক করে ইরানের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম কাহান’র প্রধান সম্পাদক হোসেইন শরীয়ত্মদারি পত্রিকায় এই মন্তব্য লেখেন। তিনি আরো লেখেন, ‘সোলাইমানির হত্যাকারী’ হিসেবে ট্রাম্প তার ‘নোংরা ও মর্যাদাহানিকর’ জীবনের জন্য ইসলামী বিপ্লবী গার্ড কর্পসের (আইআরজিসি) লক্ষ্য হবেন। ট্রাম্প যতোদিন বেঁচে থাকবেন ততোদিন তিনি আইআরজিসির লক্ষ্য হবেন।

এদিকে, রবিবার সোলেইমানি হত্যার বদলা নেওয়ার হুমকি দিয়েছে আইআরজিসি। ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি’র প্রধান মেজর জেনারেল হোসেইন সালামি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের উদ্দেশে বলেছেন, জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার বদলা নেওয়া হবেই। এ ক্ষেত্রে কোনো ধরণের দ্বিধা-সন্দেহের অবকাশ নেই।

এর আগে চলতি বছরের ৩ জানুয়ারি ইরাক সরকারের আমন্ত্রণে দেশটি সফরে গেলে বাগদাদ বিমানবন্দরের কাছে ড্রোন হামলা চালিয়ে ইরানের কুদস ফোর্সের তৎকালীন কমান্ডার জেনারেল সোলাইমানিকে হত্যা করে সন্ত্রাসী মার্কিন সেনারা। হামলায় ইরাকের জনপ্রিয় হাশদ আশ-শা’বি বাহিনীর উপপ্রধান আবু মাহদি আল-মুহান্দিসসহ দু’দেশের আরও কয়েকজন সেনা কর্মকর্তা নিহত হন।

সূত্র: আল-আরবিয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

English