Wednesday, May 22, 2024
spot_img
Homeকমিউনিটি সংবাদ USAসোমবারের মধ্যে দূতাবাসকর্মীদের পরিবারের সদস্যদের ইউক্রেন ত্যাগের নির্দেশ যুক্তরাষ্ট্রের!

সোমবারের মধ্যে দূতাবাসকর্মীদের পরিবারের সদস্যদের ইউক্রেন ত্যাগের নির্দেশ যুক্তরাষ্ট্রের!

ইউক্রেনে নিযুক্ত মার্কিন দূতাবাসের কর্মীদের পরিবারের সদস্যদের দেশটি ত্যাগের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে আগামী সোমবারের মধ্যে ইউক্রেন ছাড়ার এই প্রক্রিয়া শুরুর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। রবিবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে তুরস্কভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সি।
মার্কিন কর্মকর্তাদের উদ্ধৃতি দিয়ে শনিবার ফক্স নিউজ জানিয়েছে, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ‘এখনও উপলব্ধ’ থাকা বাণিজ্যিক ফ্লাইটের মাধ্যমে আগামী সপ্তাহে ইউক্রেন থেকে প্রত্যাহার প্রক্রিয়া শুরু করতে উৎসাহিত করবে বলে প্রতীয়মান হচ্ছে।
মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের পক্ষ থেকে অবশ্য এখনও পর্যন্ত এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিকভাবে কোনও মন্তব্য করা হয়নি।
সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন সম্পর্কে আনাদোলু এজেন্সির প্রশ্নের জবাবে ইউএস স্টেট ডিপার্টমেন্টের একজন মুখপাত্র বলেন, ‘আমাদের এই মুহুর্তে ঘোষণা করার কিছু নেই।’
তিনি বলেন, ‘নিরাপত্তা পরিস্থিতির অবনতি ঘটলে আমরা সব সময়ই কঠোর আনুষঙ্গিক পরিকল্পনা তৈরি করে থাকি।’
এদিকে ইউক্রেন সীমান্তের চার হাজার মাইলেরও বেশি এলাকাজুড়ে সেনা পাঠিয়েছে রাশিয়া। ঘোষণা দিয়েছে ব্যাপকভিত্তিক একটি নৌ-মহড়ার। ইউক্রেনের ওপর রাশিয়ার সম্ভাব্য হামলার আশঙ্কার মধ্যেই মস্কোর তরফে এই নৌ-মহড়ার ঘোষণা এলো। প্রধান প্রধান যুদ্ধ ট্যাংক, সেনা ও অন্যান্য সামরিক যান বহন করতে সক্ষম ছয়টি রাশিয়ান ল্যান্ডিংশিপ গত সপ্তাহে ভূমধ্যসাগরের পথে যাত্রা করে। রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনে হামলার নির্দেশ দিলে দেশটির দক্ষিণ উপকূলের এমন শক্তিশালী অবস্থানকে কাজে লাগাতে পারে মস্কো।
ইউক্রেনের সামরিক গোয়েন্দাদের দাবি, রাশিয়া ভাড়াটে সেনা নিয়োগ করছে এবং যুদ্ধের সম্ভাব্য প্রস্তুতির জন্য দোনেৎস্ক ও লুহানস্ক অঞ্চলে তার প্রক্সি বাহিনীকে জ্বালানি, ট্যাংক এবং স্বচালিত আর্টিলারি সরবরাহ করছে। স্বল্পপাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র, এলিট স্পেটসনাজ সেনা এবং বিমান বিধ্বংসী ব্যাটারিসহ রুশ বাহিনীর একটি উল্লেখযোগ্য অংশ এরইমধ্যে রাশিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় সামরিক জেলা থেকে বেলারুশে পৌঁছেছে। পশ্চিমা কর্মকর্তা এবং বিশ্লেষকরা বলছেন, এসব প্রস্তুতির মধ্য দিয়ে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভকে হুমকিতে রাখার সামর্থ্য অর্জন করবে মস্কো।
রাশিয়ার এমন নতুন সামরিক মোতায়েন মার্কিন কর্মকর্তাদের উদ্বিগ্ন করে তুলেছে। এমন উদ্বেগের মধ্যেই মার্কিন দূতাবাসকর্মীদের পরিবারের সদস্যদের ইউক্রেন ত্যাগের নির্দেশ দেওয়ার খবর এলো। সূত্র : আনাদোলু এজেন্সি।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments