অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা হত্যা মামলায় আরও ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) দুপুর ২টার দিকে টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়নের মারিচবুনিয়া এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার ফতার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- মারিশবুনিয়া এলাকার জালাল উদ্দিনের ছেলে মো. আয়াজ,  নাজু সওদাগরের ছেলে নুরুল আমিন ও নজির আহমদের ছেলে নিজাম উদ্দিন। এদের সিনহা হত্যাকাণ্ডে পুলিশের দায়ের করা মামলায় সাক্ষী করা হয়েছিল। ঘটনার পর পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, মেজর সিনহা টেকনাফের মারিশবুনিয়ায় তথ্যচিত্রের শ্যুটিং শেষে ফেরার পথে তাদের ডাকাত সন্দেহে পুলিশকে প্রথম খবর দেয় মো. আমিন। আমিন, আয়াছ ও আজিমকে সিনহা হত্যা মামলার প্রত্যক্ষদর্শী সাক্ষী হিসেবে টেকনাফ থানায় এজাহারে পুলিশ উল্লেখ করেছিল। ওই মামলার তদন্তভার গতকাল সোমবার আদালত র‌্যাবের কাছে ন্যস্ত করে। র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক লেফট্যানেন্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ জানান, আমরা প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হয়েছি সিনহা হত্যার ঘটনায় তাদের সম্পৃক্ততা আছে। গ্রেপ্তারের পর তাদের আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। পাশাপাশি জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে।এদিকে মঙ্গলবার বিকেল সোয়া ৪টার দিকে ওই তিনজনকে আদালতে হাজির করে অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা সিনহা হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে বলে কক্সবাজার আদালত পুলিশের পরিদর্শক প্রদীপ কুমার দাশ জানিয়েছেন। তিনি বলেন, মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য প্রত্যেকের ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করা হয়েছে।উল্লেখ্য, গেল ৩১ জুলাই রাতে টেকনাফ বাহারছড়া চেকপোস্টে তল্লাশির সময় পুলিশের গুলিতে নিহত হন সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

English