জিতলে সিরিজ নিশ্চিত। হারলে ট্রফি হাতছাড়া। এমন সহজ সমীকরণের ম্যাচে শ্বাসরুদ্ধকর লড়াইয়ে ৭ রানে জিতে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ নিশ্চিত করে স্বাগতিক ভারত।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ঋষভ পন্থ, শিখর ধাওয়ান, হার্দিক পান্ডিয়ার ঝড়ো ফিফটিতে ভর করে ৪৮.২ ওভারে ৩২৯ রানে অলআউট হয় ভারত। 
 
রোববার পুনের মহারাষ্ট্র ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিশাল টার্গেট তাড়া করতে নেমে ৯৫ রানে প্রথম সারির চার ব্যাটসম্যানের উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে যায় ইংল্যান্ড।  

জেসন রয়, জনি বেয়ারস্টো, বেন স্টোকস, জস বাটলারদের আসা-যাওয়ার মিছিলে একাই লড়াই করে যান ডেভিড মালান।  দলীয় ১৬৮ রানে ষষ্ঠ ব্যাটসম্যান হিসেবে ফেরেন তিনি।  তার আগে ৫০ বলে ৫০ রান করেন মালান। 

এরপর একাই লড়াই করে যান সেম কুরান। লোয়ার অর্ডারে ব্যাটসম্যানদের নিয়ে দলকে জয়ের স্বপ্ন দেখিয়ে শেষ পর্যন্ত ব্যর্থ হন তিন। 

জয়ের জন্য শেষ তিন ওভারে ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ছিল মাত্র ২৩ রান।  ৪৮তম ওভারে মাত্র ৪ রান খরচ করেন ভুবনেশ্বর কুমার। ৪৯তম ওভারে ৫ রান খরচ করেন হার্দিক পান্ডিয়া। 

শেষ ওভারে জয়ের জন্য ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ছিল ১৪ রান। নটরাজনের প্রথম বলে সিঙ্গেল নেন সেম কুরান, দ্বিতীয় রান করতে গিয়ে রান আউট হন মার্ক উড।  শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে ব্যাটিংয়ে নামা রিচ টোপেল দ্বিতীয় বলে সিঙ্গেল নিয়ে প্রান্ত বদল করেন। 

জয়ের জন্য শেষ চার বলে প্রয়োজন ছিল ১২ রান। তৃতীয় ও চতুর্থ বলে সেম কুরান সিঙ্গেল নেয়ার সুযোগ পেয়েও বাউন্ডারি হাঁকাতে স্ট্রাইকে থেকে যান। শেষ দুই বলে জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ১২ রান। পঞ্চম বলে বাউন্ডারি হাঁকান তিনি। শেষ বলে কোনো রান করতে পারেননি সেম কুরান।  মাত্র ৭ রানে হেরে যায় ইংল্যান্ড।  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

English