Wednesday, April 17, 2024
spot_img
Homeকমিউনিটি সংবাদ USAশাটডাউন এড়াতে যুক্তরাষ্ট্রে ১ লাখ ২০ হাজার কোটি ডলারের বিল পাস

শাটডাউন এড়াতে যুক্তরাষ্ট্রে ১ লাখ ২০ হাজার কোটি ডলারের বিল পাস

যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেস শনিবার ভোরে সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোটে এক লাখ ২০ হাজার কোটি ডলারের বাজেট বিল পাস করেছে। ছয় মাস আগে শুরু হওয়া অর্থবছরের সরকারের অর্থায়ন বজায় রাখায় সাহায্য করছে এই বিপুল বাজেট। আইনটিতে স্বাক্ষর করার জন্য প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের কাছে পাঠানো হয়েছে। এই বিল পাসের মাধ্যমে আংশিক শাটডাউন এড়াতে সক্ষম হলো যুক্তরাষ্ট্র সরকার।

কংগ্রেসে ৭৪-২৪ ভোটে এই বিলটি পাস হয় ।

ডেমক্রেটিক সংখ্যাগরিষ্ঠায় সিনেটে পাস হওয়া বিলটির ফলে, হোমল্যান্ড সিকিউরিটি, বিচার, রাজ্য এবং ট্রেজারি বিভাগসহ মূল ফেডারেল এজেন্সিগুলোতে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অর্থায়ন করা হবে।

কিন্তু এই উদ্যোগে মূলত ইউক্রেন, তাইওয়ান অথবা ইসরাইলের জন্য সামরিক ত্রাণের অর্থায়নের বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। এ বিষয়টি অন্য একটি বিলে যোগ করা হয়েছিল, যেটি সিনেটে পাস করলেও রিপাবলিকান সংখ্যাগরিষ্ঠ হাউজ অফ রিপ্রেজেন্টেটিভস এ বাতিল করা হয়।

সিনেট নেতারা শুক্রবার বাজেট বিলে বেশ কয়েকটি সংশোধনী নিয়ে আলোচনা করেন। তবে সেগুলো সিনেটের অনুমোদন পায়নি। তবে আলোচনার দীর্ঘসূত্রতায় সিনেট সদস্যরা শুক্রবার মধ্যরাতের সময়সীমা পার করে ফেলেন।

তবে হোয়াইট হাউস অফিস অফ ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড বাজেট এক বিবৃতিতে সিনেট দ্রুত বিলটি পাস করবে বলে আস্থা প্রকাশ করেছে। সিনেট অবশ্য তাই করেছে। এমনকি তারা এজেন্সিগুলো বন্ধ করার নির্দেশও দেয়া হবে না বলে জানিয়েছে।

১০১২ পৃষ্ঠার এই বিলে যুক্তরাষ্ট্রের সৈন্য সংখ্যা বৃদ্ধিসহ প্রতিরক্ষা বিভাগের জন্য ৮৮ হাজার ৬০০ কোটি ডলারের তহবিল বরাদ্দ রাখা হয়েছে। ডেমোক্র্যাট নেতা বাইডেন এতে স্বাক্ষর করবেন বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন।

শুক্রবার তার নিজ দলের কট্টরপন্থীদের এড়াতে একটি বিশেষ পার্লামেন্টারি কৌশল অবলম্বন করেন জনসন। পূর্বসূরি কেভিন ম্যাকার্থির কাছ থেকে স্পিকারের দায়িত্ব বুঝে নেয়ার পর তাকে ৬০ বারেরও বেশি এই কৌশল অবলম্বন করতে হয়েছে। তিনি এই উদ্যোগকে ২৮৬ বনাম ১৩৪ ভোটে পাস করানোর ব্যবস্থা করেন। এতে রিপাবলিকানদের চেয়ে ডেমোক্র্যাটদের সমর্থন উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বেশি।

গত ছয় মাসের বেশিরভাগ সময় সরকারের অর্থায়ন করার জন্য চারটি স্বল্প-মেয়াদী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছিল। রেটিং সংস্থাগুলো সতর্ক করেছে, এতে ঋণগ্রহীতা হিসেবে ফেডারেল সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হয়েছে। ইতোমধ্যে সরকার ৩৪ লাখ ৬০ হাজার কোটি ডলার দেনায় আছে।

রিপাবলিকান দলের সিনেটর সুজান কলিন্স বলেন, ‘এ বিলটি সত্যিকার অর্থেই একটি জাতীয় নিরাপত্তা বিল। কারণ এর প্যাকেজের ৭০ শতাংশ তহবিল আমাদের জাতীয় প্রতিরক্ষার জন্য রয়েছে, তাছাড়া সামরিক প্রস্তুতি এবং শিল্প ভিত্তির মজবুত করার জন্যও এর প্রয়োজন। আমাদের সাহসী পরিষেবা প্রদানকারী সদস্যদের বেতন আর সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধির সাথে আমাদের নিকটতম মিত্রদেরও সমর্থন করবে।’

বিলটির বিরোধীরা এটিকে ভীষণ ব্যয়বহুল বলে অভিহিত করছেন।

নতুন বাজেটে বিলটি ডেমোক্র্যাটের ১৮৫টি এবং রিপাবলিকানের ১০১টি ভোটে হাউসে পাস হয়। তাই কট্টরপন্থী রক্ষণশীল গ্রিন, জনসনকে ক্ষমতাচ্যুত করার জন্য পদক্ষেপ নিতে পারবেন।

কিছু কিছু ডেমোক্র্যাট শুক্রবার জনসনকে রাখার পক্ষে ভোট দেয়ার কথা বলেছেন, যদি তিনি ইউক্রেন, ইসরাইল এবং তাইওয়ানের জন্য ইতোমধ্যে সিনেট দ্বারা অনুমোদিত নয় হাজার পাঁচ শ কোটি ডলার সুরক্ষা সহায়তা প্যাকেজের উপর ভোট আহ্বান করেন।
সূত্র : ভয়েস অব আমেরিকা

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments