Monday, May 27, 2024
spot_img
Homeখেলাধুলালিটন-শান্ত-সৌমের জন্য পাপনের দোয়া

লিটন-শান্ত-সৌমের জন্য পাপনের দোয়া

বিশ্বকাপের দল ঘোষণা আজই

গেল এক বছর ধরে ফর্মে নেই লিটন দাস। সবশেষ ৯ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে তার সংগ্রহ মাত্র ১৭৮  রান। অন্যদিকে অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্তও নেই ফর্মে।  শেষ ১২ মাসে ১৩ ম্যাচ খেলে ২০ ওভারের ফরম্যাটে শান্ত করেছেন ১০৯.৪২ স্ট্রাইক রেটে মাত্র ২০৯ রান। যেখানে আছে মাত্র একটি ফিফটি। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেও তার ৫ ম্যাচে কোন ফিফটি নেই।

বিশ্বকাপের যেখানে আর এক মাসও বাকি নেই সেখানে দলের এমন গুরুত্বপূর্ণ ব্যাটারের এমন ফর্ম হারানো অবশ্য বড় চিন্তার বিষয়। তবে এমন নয় যে তারা এই মানেরই ক্রিকেটার। বিভিন্ন সময়ে নিজেদের প্রমাণ করেছেন তারা। তাই এমন সময়ে এই দু’জনের জন্য দোয়া করা ছাড়া আর কিছু নেই বলেই মনে করেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তিনি বলেন, ‘(ওপেনিংয়ে) এখানে কাকে খেলাবে, তাতো বলতে পারি না।

তবে দোয়া করতে পারি যাতে ওরা যেন ফর্মে ফেরত আসে। শান্ত, লিটন অথবা সৌম্য যেন ওদের স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে পারে। তানজিদ তামিম যে সাহস করে খেলে যাচ্ছে, ফ্রি ফ্লোয়িং ক্রিকেট খেলে যাচ্ছে, এভাবে যদি খেলতে পারি, তাহলে আমরা আশা করতে সামনে ভালো হবে। (জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে) এখানটায় ভালো হয়নি।’ অন্যদিকে পাপর জানিয়েছেন আজ বিশ্বকাপের দল ঘোষণ করা হবে আজই।

বিশ্বকাপের আগে দলের ওপেনিং নিয়ে ছিলো ভয়ানক চিন্তা। তবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সুযোগ পেয়ে অভিষেকেই ফিফটি হাঁকিয়েছে নিজের যোগ্যতার প্রমাণ দিয়েছেন তরুণ তানজিদ হাসান তামিম। ৫ ম্যাচের সিরিজে হাঁকিয়েছেন দুটি ফিফটিও। যে কারণে তার ব্যাটিং থেকে দারুণ খুশি বিসিবি সভাপতি পাপন। তিনি বলেন, ‘ওপেনার আছেই তিন জন। আমাকে যদি জিজ্ঞাসা করেন, তানজিদ তামিমের এপ্রোচটা ভালো। টি-টোয়েন্টিতে এই এপ্রোচটা ভালো। ও যে এখনই খুব ভালো খেলোয়াড় হয়ে গেছে, তা না। তবে ও ভালো করেছে। লিটন দাসকে আমরা মনে করি সব ফরম্যাটে আমাদের ভালো একটা ব্যাটসম্যান। তবে আমরা এটাও জানি, ওর একটা খারাপ সময় যাচ্ছে এবং এই সিরিজে সে ভালো করেনি। আর সৌম্য সরকারের কথা যদি বলেন, তাহলে ওই পজিশনে অন্য কাউকে নেওয়ার অবস্থা যে আমাদের আছে, তা নয়। এই মুহূর্তে সেও টি-টোয়েন্টিতে আমাদের গুরুত্বপূর্ণ ব্যাটসম্যান।’ বিশেষ করে তরুণ তানজিদের ব্যাটিং অ্যাপ্রোচ বিসিবি সভাপতিকে ভীষণ ভাবে মুগ্ধ করেছে। পাপন বলেন, ‘এখানে আমরা যেটা দেখেছি, কয়েকটা ছেলের খেলা ভালো লেগেছে। যেমন কিছু ম্যাচে তানজিদ তামিমের এপ্রোচ ভালো লেগেছে, ফ্রি ফ্লোইং খেলে যাচ্ছে। (জাকের আলি) অনিককে দেখেছি, ওর খেলা আগে ওভাবে দেখা হয়নি। ওর খেলাটাও ভালো লেগেছে। আর সবচেয়ে ভালো লেগেছে অবশ্যই মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। অসাধারণ খেলেছে।’

অন্যদিকে জিম্বাবুয়েকে দেশে আনা হয়েছে বিশ্বকাপ প্রস্ততির জন্য তা কোন ভাবেই মানতে রাজি নয় বিসিবি সভাপতি। তিনি আরো একবার স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছেন এফটিপির অংশ হিসেবেই তারা খেলতে এসেছে। তিনি বলেন, ‘প্রথম কথা হল যে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি হিসেবে এখানে এনেছি, কথাটা ঠিক না। এটা আইসিসি এফটিপির খেলা, এটা খেলতেই হবে। এখানে কী ইস্যুতে কথা হচ্ছে তা আমি জানি না। আমরা তো পয়েন্ট ছেড়ে দিব না। আর দ্বিতীয়ত পারফরম্যান্স, আগেও বলেছি, এই সিরিজে ব্যাটসম্যানদের মধ্যে যাদের কাছ থেকে যে প্রত্যাশা ছিল, সবার কাছ থেকে তা পাইনি। এটা আমি সোজাসুজি বলে দিচ্ছি।’

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments