Sunday, June 16, 2024
spot_img
Homeবিনোদনরাষ্ট্রপতি ভবনে দেখানো হবে শাহরুখের ‘ডানকি’

রাষ্ট্রপতি ভবনে দেখানো হবে শাহরুখের ‘ডানকি’

মুক্তি পেয়েছে বছরের অন্যতম প্রত্যাশিত চলচ্চিত্র ‘ডানকি’। এ বছর শাহরুখ খানের পাঠান ও জওয়ানের মতো সিনেমা আলোচনায় থাকলেও ডানকি ছিল দর্শকদের আকাঙ্ক্ষার কেন্দ্রবিন্দুতে। কারণ, প্রথমবারের মতো রাজকুমার হিরানির সঙ্গে জুটি বেঁধে কাজ করলেন শাহরুখ খান। আর সেই প্রত্যাশা শতভাগ পূরণও করেছেন এই জুটি।

বক্স অফিসে তিনদিনে ৭৫ কোটির মতো আয় করেছে ডানকি। পাচ্ছে দর্শক প্রশংসা। এবার ভারতের রাষ্ট্রপতি ভবনেও দেখানো হচ্ছে সিনেমাটি।সংবাদমাধ্যম এএনআইয়ের প্রতিবেদন অনুসারে, ২৪ ডিসেম্বর রাষ্ট্রপতি ভবনে রয়েছে ডানকির এই বিশেষ প্রদর্শনী।

হিরানি পরিচালিত সিনেমাটি অবৈধ অভিবাসন সমস্যার উপর ভিত্তি করে তৈরি হয়েছে, যা সত্যিই একটা গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা। তাই সিনেমাটি সংসদীয় কর্তৃপক্ষের অবশ্যই দেখা উচিত বলে মনে করা হচ্ছে। আর এই কারণেই রাষ্ট্রপতি ভবনে আয়োজন করা হয়েছে ‘ডানকি’র বিশেষ প্রদর্শনী।এএনআইয়ের সূত্র অনুসারে, ২৪ ডিসেম্বর রাষ্ট্রপতি ভবনে ডানকি’র বিশেষ প্রদর্শনীর সময় উপস্থিত থাকতে পারেন পরিচালক রাজকুমার হিরানি এবং অভিজিৎ যোশী।

এদিকে শাহরুখ অনুরাগীরা ইতিমধ্যেই ডানকিকে করমুক্ত করার দাবি তুলেছেন সরকারের কাছে। দর্শকদের দাবি, এমন শিক্ষামুলক চলচ্চিত্রকে করমুক্ত করা অত্যন্ত জরুরি।এদিকে একই সঙ্গে মুক্তি পাওয়ায় ডানকির জন্য কঠোরতম প্রতিদ্বন্দ্বিতা তৈরি করেছে প্রভাসের ‘সালার।’ সিনেমাটি দুই দিনে বিশ্বব্যাপী ২৯৫ কোটির মতো আয় করে নিয়েছে। সালারের দাপটে অনেকটাই কোণঠাসা হয়ে পড়েছে শাহরুখের ডানকি।

যদিও শনিবার ডানকির আয় দ্বিতীয় দিনের (শুক্রবার) পরিসংখ্যান থেকে ৩০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে বক্স অফিসে প্রত্যাশিত আয় করতে না পারলেও মুক্তির পর দর্শক-অনুরাগীদের প্রত্যাশা শতভাগ পূরণ করতে পেরেছে ডানকি। সিনেমা হলে দর্শকদের উপচে পড়া ভিড় আর সামাজিক মাধ্যমে সমালোচকদের পজিটিভ রিভিউ সেটাই প্রমাণ করছে। হিরানির জাদুতে মুগ্ধ করেছেন শাহরুখ খান, এমনটাই রব উঠেছে চারপাশে।সিনেমা হল থেকে বের হওয়া দর্শক ও সামাজিক মাধ্যমে রীতিমতো ট্রেন্ডিংয়ে ডানকি। শাহরুখ-হিরানি জুটির প্রশংসায় পঞ্চমুখ সবাই। ডানকিতে হার্ডি চরিত্রে শাহরুখ খান ছিলেন অনবদ্য। তিনি তাঁর চরিত্রে দারুণ কারিশমা নিয়ে হাজির হয়েছেন। তার কোর্টরুমের সেই দৃশ্যকে চার দশকজুড়ে বিস্তৃত তাঁর ক্যারিয়ারের সেরা দৃশ্য হিসেবেই বিবেচনা করছেন দর্শক-সমালোচকরা। গোটা গল্প নিজের কাঁধে টেনে নিয়ে গেছেন শাহরুখ খান। শাহরুখের সঙ্গী হিসেবে তাপসী পান্নুও ছিলেন দুর্দান্ত। তাঁর পারফরম্যান্সে যে আত্মবিশ্বাস দেখা গেছে, তা মন জয় করেছে ভক্তদের। মনুর চরিত্রটি তাপসী পান্নুর ফিল্মগ্রাফিতে উজ্জ্বল হয়ে উঠবে বলেই মতামত প্রকাশ করছেন সমালোচকরা। বাল্লি এবং বুগু চরিত্রে অনিল গ্রোভার এবং বিক্রম কোচার ক্যারিয়ারসেরা পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন। তাদের জাদুকরী উপস্থিতি চলচ্চিত্রটিকে আরো পরিপূর্ণ করেছে। ইমান বোরানিও ছিলেন নিজের চরিত্রে অনবদ্য। অভিনয়ের দিক থেকে ডানকির প্রত্যেকেই ছিলেন অনুকরণীয়। ফলাফল- দর্শক হৃদয়ে তোলপাড় করে গেছে ডানকি।

মুন্না ভাই এমবিবিএস (২০০৩), লাগে রাহো মুন্না ভাই (২০০৬), ৩ ইডিয়টস (২০০৯), পিকে (২০১৪) এবং সঞ্জু (২০১৮)-এর পরে ডানকি রাজকুমার হিরানির ষষ্ঠ চলচ্চিত্র। আর কিং খান শাহরুখের সঙ্গে এটা তাঁর প্রথম চলচ্চিত্র।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments