Wednesday, April 17, 2024
spot_img
Homeআন্তর্জাতিকযুক্তরাষ্ট্রের গ্রিন কার্ডের অপেক্ষায় গোটাবাইয়া

যুক্তরাষ্ট্রের গ্রিন কার্ডের অপেক্ষায় গোটাবাইয়া

যুক্তরাষ্ট্রের গ্রিন কার্ড পাওয়ার চেষ্টা করছেন শ্রীলঙ্কার সাবেক প্রেসিডেন্ট গোটাবাইয়া রাজাপাকসে। তিনি তার স্ত্রী এবং সন্তানকে নিয়ে সেখানেই স্থায়ী হচ্ছেন। এমনটাই জানাচ্ছে শ্রীলঙ্কার গণমাধ্যম ডেইলি মিরর। এরইমধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে থাকা গোটাবাইয়ার আইনজীবীরা সব ধরণের কার্যক্রম শুরু করে দিয়েছেন। গত মাসেই তিনি যুক্তরাষ্ট্রের গ্রিন কার্ডের জন্য আবেদন করেন। তার স্ত্রী ইয়োমা রাজাপাকসে একজন মার্কিন নাগরিক। সে হিসেবে তিনি এই আবেদন করার যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন। 

খবরে জানানো হয়, শ্রীলঙ্কায়ও তার আইনজীবীরা কার্যপ্রণালী অনুসরণ করে এগিয়ে যাচ্ছে। বর্তমানে থাইল্যান্ডের একটি হোটেলে অবস্থান করছেন গোটাবাইয়া। তার সঙ্গে আছেন তার স্ত্রী। প্রথমে তাদের পরিকল্পনা ছিল আগামী নভেম্বর পর্যন্ত থাইল্যান্ডে থাকবেন।

তবে এখন তারা আগামী ২৫শে আগস্ট শ্রীলঙ্কায় ফেরার কথা ভাবছেন। থাইল্যান্ডে নিরাপত্তাজনিত কারণে তিনি স্বাধীনভাবে চলাফেরা করতে পারছেন না। ব্যাংকক পৌঁছানোর পর থাই পুলিশ তাকে হোটেলের মধ্যেই থাকার পরামর্শ দিয়েছে। 
থাইল্যান্ডে যে হোটেলে রয়েছেন গোটাবাইয়া তার অবস্থান গোপন রয়েছে। সেখানে সাদা পোশাকে টহল দিচ্ছে থাইল্যান্ডের নিরাপত্তা বাহিনীর স্পেশাল ব্রাঞ্চের সদস্যরা। সাবেক লঙ্কান প্রেসিডেন্টের ওপর যাতে কোনো হামলা না হয় তা নিশ্চিতে কোনো ঘাটতি রাখছে না থাইল্যান্ড সরকার। এ মাসেই শ্রীলঙ্কায় ফেরার পর হামলার ঝুঁকি আরও বেড়ে যাবে গোটাবাইয়ার ওপর। তাই তাকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তাসম্পন্ন রাষ্ট্রীয় ভবন দেয়ার বিষয়ে আলোচনা করছে শ্রীলঙ্কার মন্ত্রিসভা।

এর আগে গত মাসে আন্দোলনের মুখে মালদ্বীপ পালিয়ে যান গোটাবাইয়া রাজাপাকসে। সেখানেও তার বিরুদ্ধে আন্দোলন শুরু হলে তিনি সিঙ্গাপুর যান। সেখানে অল্প সময় অবস্থানের পর থাইল্যান্ডে যান গোটাবাইয়া। পুরো সময় তার সঙ্গে ছিলেন তার স্ত্রী। এখন তারা যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ী হওয়ার চেষ্টা করছেন। 

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments