Wednesday, June 12, 2024
spot_img
Homeবিচিত্রমুরগির জন্য বিপদে সিঙ্গাপুর!

মুরগির জন্য বিপদে সিঙ্গাপুর!

সিঙ্গাপুরের জাতীয় খাবার মুরগির গোশত আর সাদা ভাত। মুরগির গোশতের সঙ্গে সবজি- এই হলো তাদের প্রায় প্রতিদিনের খাবার। কিন্তু সমস্যা হচ্ছে মুরগির প্রায় পুরোটাই আমদানি করা হয়। বিপদটা হয়েছে সেখানেই। সিঙ্গাপুর ফুড এজেন্সির হিসাবে, মালয়েশিয়া থেকে ৩৪, ব্রাজিল থেকে ৪৯ ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে ১২ শতাংশ মুরগি আমদানি করা হয়।
ইউক্রেন যুদ্ধ, খারাপ আবহাওয়া ও করোনা মহামারির কারণে সরবরাহ ব্যবস্থায় বিঘ্ন ঘটায় মালয়েশিয়ায় মুরগির খাবারের সঙ্কট দেখা দিয়েছে। সে কারণে গতকাল বুধবার থেকে দেশটি মুরগি রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

মুরগি ভাত বিক্রি করে এমন দোকানের মালিক ডেনিয়েল তান বলেন, রান্নার জন্য তিনি মালয়েশিয়া থেকে জীবন্ত মুরগি কিনে আনেন। কিন্তু এখন নিষেধাজ্ঞা দেয়ায় তাকে হয়ত ব্রাজিল থেকে আসা বরফে জমানো মুরগির গোশত ব্যবহার করতে হবে, যা খাবারের স্বাদ কমিয়ে দিবে। সে কারণে তিনি ব্যবসায় ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা করছেন।
মুরগির খাবার হিসেবে সাধারণত সয়াবিন ও শস্যকণা দেয়া হয়। মালয়েশিয়া এগুলো আমদানি করে। বর্তমানে এগুলোর সঙ্কট দেখা দেয়ায় বিকল্প খোঁজা হচ্ছে। কিন্তু বিকল্প খাবারের মান কম হওয়ায় মুরগি সময়মতো বড় হচ্ছে না। এতে খামারিরা বিপদ পড়ছেন।

খামার মালিক সায়জুল আব্দুল্লাহ সামিল জুলকাফলি জানান, তিনি সাধারণত বছরে সাতবার ব্রয়লার মুরগি বিক্রি করেন। কিন্তু এবার খাবারের মান কম হওয়ায় মুরগি সময়মতো বড় হতে পারছে না। এ জন্য তাকে হয়ত পাঁচবার মুরগি বিক্রি করতে হবে।
রফতানি নিষেধাজ্ঞায় খামারিদের অবস্থা আরও খারাপ হবে। মালয়েশিয়া সরকার অবশ্য খামার মালিকদের জন্য প্রায় দেড় হাজার কোটি টাকার ভর্তুকির ব্যবস্থা করেছে। সূত্র : রয়টার্স, দ্য গার্ডিয়ান।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments