মালির প্রধানমন্ত্রী বোবোউ চিসে ও প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম বৌবাকার কেইতাকে আটক করেছে দেশটির সেনাবাহিনীর একটি অংশ। সরকারি এক মুখপাত্রের বরাতে মঙ্গলবারের অনলাইন প্রতিবেদনে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে বিবিসি।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী বোবোউ চিসে বিদ্রোহীদের সঙ্গে ‘ভ্রাতৃসুলভ আলোচনার’ আহ্বান জানিয়েছিলেন। বিবিসির প্রতিবেদন অনুযায়ী, স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সকালে দেশটির রাজধানী বামাকো থেকে ১৫ কিলোমিটার দূরের একটি প্রধান সামরিক ঘাঁটিতে গুলি ছোড়ার মধ্য দিয়ে এই অভ্যুত্থানের শুরু হয়।

খবরে বলা হয়, কাতি ঘাঁটির আশপাশে সাজোয়া ট্যাংক নিয়ে সেনাদের টহল দিতে দেখা যায়। এ বিষয়ে দেশটির এক সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র বলছে, গোলাগুলির খবর ছাড়া অন্য কোনো তথ্য এখনো জানতে পারেনি তারা।

অন্যদিকে বিদ্রোহীদের পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়, ‘প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী এখন আমাদের হাতে রয়েছেন। আমরা তাদের বাসভবনের নিয়ন্ত্রণ নিতে সক্ষম হয়েছি।’

এর আগে গত ১২ জুলাই মালিতে কয়েক মাস ধরে চলা রাজনৈতিক অস্থিরতা থামাতে সাংবিধানিক আদালত ভেঙে দেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম বৌবাকার কেইতা।

দেশটির সরকারের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন যাবৎ দুর্নীতি এবং জাতীয় নিরাপত্তা নিশ্চিতে ব্যর্থতার অভিযোগে আন্দোলন করে আসছিল সাধারণ মানুষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

English