Wednesday, April 17, 2024
spot_img
Homeকমিউনিটি সংবাদ USAমার্কিন মুসলিমদের মনঃকষ্ট বোঝেন বাইডেন

মার্কিন মুসলিমদের মনঃকষ্ট বোঝেন বাইডেন

গাজায় হাজার হাজার বেসামরিক ফিলিস্তিনির নিহত হওয়ায় মার্কিন মুসলিমদের মনঃকষ্টের বিষয় বোঝেন  প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। শুক্রবার এক বিবৃতিতে এ কথা বলেছেন তিনি। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ক্ষমতায় আসার পর ২০২১ সালে এপ্রিল মাসকে ‘আরব আমেরিকান হেরিটেজ মান্থ’ হিসেবে স্বীকৃতি  দেয়া হয়। আর দু’দিন পরেই শুরু হচ্ছে এপ্রিল মাস। দরজায় কড়া নাড়তে থাকা ‘আরব আমেরিকান হেরিটেজ মান্থ’কে সম্মান জানিয়ে শুক্রবার এক লিখিত বিবৃতিতে বাইডেন বলেন, ‘গাজায় চরম মানবিক বিপর্যয় চলছে। প্রতিদিন শত শত বেসামরিক মানুষের সেখানে নিহত হওয়া এবং সহিংসতার জেরে মার্কিন মুসলিমরা যে নিদারুণ মানসিক কষ্টে আছেন তা আমরা বুঝতে পারি। ব্যক্তিগতভাবে আমি নিজেও এ ইস্যুতে মানসিকভাবে বিধ্বস্ত।’ তবে যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম সারির সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট জানিয়েছে, বাইডেন এই বার্তা দেয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে ইসরাইলের কাছে বোমা ও যুদ্ধবিমান বিক্রয় সংক্রান্ত একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে বাইডেন প্রশাসন। যুক্তিতে যত সংখ্যক বোমা ও যুদ্ধবিমানের উল্লেখ রয়েছে, বর্তমান বাজারে সে সবের দাম শত কোটি ডলারের ওপর। প্রসঙ্গত, ইসরাইলের সবচেয়ে পুরনো, বিশ্বস্ত ও প্রভাবশালী মিত্র যুক্তরাষ্ট্র। ১৯৪৮ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে বিশ্বের এই একমাত্র ইহুদি রাষ্ট্রটিকে আর্থিক, সামরিক, রাজনৈতিক ও গোয়েন্দা সহায়তা দিয়ে আসছে ওয়াশিংটন।

সেই ধারাবাহিকতায় গাজায় হামাস ও ইসরাইলি বাহিনীর চলমান যুদ্ধের শুরু থেকেই ইসরাইলকে সমরাস্ত্র ও রাজনৈতিক সহায়তা দিয়ে আসছে যুক্তরাষ্ট্র।

এমনকি এ পর্যন্ত জাতিসংঘে গাজায় যুদ্ধবিরতি সংক্রান্ত যত প্রস্তাব উঠেছে, সেগুলোর মধ্যে সর্বশেষ প্রস্তাবটি ব্যতীত বাকি সবগুলো ভেটো ক্ষমতা প্রয়োগের মাধ্যমে বাতিল করেছে ওয়াশিংটন। এদিকে যুদ্ধ শুরুর পর থেকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রেও দিন দিন তীব্র হয়ে উঠছে গাজায় যুদ্ধবিরতির দাবি। বাইডেন প্রশাসনের ওপর দেশটির মুসলিম সম্প্রদায়ের লোকজন যে ক্ষুব্ধ-হতাশ- তা প্রকাশ্যেই বলেছেন মার্কিন মুসলিম নেতারা। চলতি বছরের নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হবে। সেই নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বাইডেন। নির্বাচনকে সামনে রেখে ইতিমধ্যে জনসংযোগ ও তহবিল সংগ্রহের কাজও শুরু করেছেন তিনি। তবে এ সংক্রান্ত তার প্রতিটি সমাবেশে গাজায় যুদ্ধবিরতির দাবিতে  স্লোগান দিচ্ছেন মার্কিন মুসলিম ও ডেমোক্রেটিক পার্টির সদস্যরা। গত ৭ই অক্টোবর ইসরাইলের ভূখণ্ডে ঢুকে হামলা চলায় হামাস  যোদ্ধারা। অতর্কিত সেই হামলায় ইসরাইলে সেদিন নিহত হন ১ হাজার ২০০ মানুষ, সেই সঙ্গে ২৪০ জন মানুষকে জিম্মি হিসেবে ধরে নিয়ে যায় হামাস যোদ্ধারা। অভূতপূর্ব এই ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় সেই দিন থেকেই গাজা উপত্যকায় অভিযান শুরু করে ইসরাইলি বাহিনী। গত ছয় মাস ধরে চলমান সেই অভিযানে ইতিমধ্যে উপত্যকায় নিহত হয়েছেন ৩২ হাজারেরও বেশি ফিলিস্তিনি, আহতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৭৪ হাজার। সেই সঙ্গে বাড়িঘর হারিয়ে বাস্তুচ্যুত হয়েছেন লাখ লাখ মানুষ।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments