Wednesday, June 12, 2024
spot_img
Homeবিনোদনমামলা তুলে নিতে বাংলালিংকের কাছে ১০ কোটি টাকা চান জেমস-মাইলস

মামলা তুলে নিতে বাংলালিংকের কাছে ১০ কোটি টাকা চান জেমস-মাইলস

অনুমতি ছাড়া গান ব্যবহারের অভিযোগে মোবাইল অপারেটর বাংলালিংকের বিরুদ্ধে কপিরাইট আইনে মামলা করেছেন নগর বাউল খ্যাত ব্যান্ড তারকা মাহফুজ আনাম জেমস এবং মাইলস ব্যান্ডের মানাম আহমেদ ও হামিন আহমেদ। ১০ কোটি টাকা পেলে সেই মামলা প্রত্যাহার করবেন তারা। 

কপিরাইট আইনের দুই মামলায় বাংলালিংকের চারজনের পক্ষে করা জামিন আবেদনের শুনানিতে আইনজীবীরা এ কথা বলেন।

সোমবার ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কেএম ইমরুল কায়েশের আদালতে মামলার শুনানির দিন ধার্য ছিল। এ সময় মানাম ও হামিন এজলাসে হাজির ছিলেন।

মামলায় অন্তবর্তীকালীন জামিনে থাকা বাংলালিংকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এরিক অস, প্রধান কমপ্লায়েন্স অফিসার এম নুরুল আলম, প্রধান কর্পোরেট রেগুলেটরি অফিসার তৈমুর রহমান ও হেড অব ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস অনীক ধর আদালতে আত্মসমর্পণ করে স্থায়ী জামিন চান।

তাদের আইনজীবী বাহারুল ইসলাম বলেন, বাদীপক্ষের সঙ্গে মামলা নিয়ে আপসের কথাবার্তা চলছে। জেমস ও মাইলস ৫ কোটি করে ১০ কোটি টাকা চেয়েছেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী তাপস পাল জানান, শুনানি শেষে আদালত আসামিদের স্থায়ী জামিন মঞ্জুর করে আপসসহ সার্বিক বিষয়ের সিদ্ধান্তের জন্য ৫ জানুয়ারি মামলার পরবর্তী দিন ঠিক করেন।

৩০ নভেম্বর আসামিরা আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন চাইলে আদালত তা মঞ্জুর করে সোমবার পর্যন্ত জামিন দিয়েছিলেন। তার মেয়াদ শেষ হলে সোমবার তারা আদালতে এসে জামিনের স্থায়ী আবেদন করেন।

তাপস পাল বলেন, আসামিপক্ষের আইনজীবীরা বলেছেন, জেমস এবং মাইলসের পক্ষ থেকে মামলাটি আপসের জন্যয় ৫ কোটি করে ১০ কোটি টাকা চেয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে। এ নিয়ে দুইপক্ষ বৈঠকেও বসবেন। তাদের আপসের কথাবার্তা চলছে।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, মামলায় অনুমতি ছাড়া নগরবাউল জেমসের ছয়টি গান ব্যবহারের অভিযোগ আনা হয়েছে বাংলালিংকের বিরুদ্ধে। আর ব্যান্ড দল মাইলসের দুটি গান অনুমতি ছাড়া ব্যবহারের অভিযোগ আনা হয়েছে বাংলালিংকের বিরুদ্ধে। 

জানা গেছে, জেমসের অসংখ্য গান এখনও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বিনা অনুমতিতে বাণিজ্যিক ব্যবহার করে আসছে। এসব বিষয়ে কোনও সুরাহা না পেয়েই এবার আইনের আশ্রয় নিয়েছেন জেমস।

এর আগে ১৯ সেপ্টেম্বর কপিরাইট আইনে মামলার আরজি নিয়ে একই আদালতে গিয়েছিলেন জেমস। আদালত তার মামলার আবেদন গ্রহণ না করে গুলশান থানায় মামলা করার নির্দেশ দিয়েছিল।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments