Sunday, July 14, 2024
spot_img
Homeবিচিত্রমদের খোঁজে নববধূর ঘরে পুলিশ, অজ্ঞান বিব্রত শাশুড়ি

মদের খোঁজে নববধূর ঘরে পুলিশ, অজ্ঞান বিব্রত শাশুড়ি

ঘরে মদ রাখা আছে কী না জানতে বিয়ের মাত্র পাঁচদিন পর এক নববধূর ঘরে তল্লাশি চালিয়েছে পুলিশ। এই ঘটনায় বিব্রত ওই নববধূর শাশুড়ি অজ্ঞান হয়ে গেছেন বলে ভারতীয় গণমাধ্যম জিনিউজ ও ইন্ডিয়া ডটকম শনিবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতের বিহারের হাজীপুর শহরের হাটসারগঞ্জ এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। পুলিশ ওই এলাকার শীলা দেবীর বাড়িতে তার সদ্য বিবাহিত পুত্রের ঘরে ঢুকে তল্লাশি শুরু করে।

শীলা দেবীর পুত্রবধূ পূজা কুমারী শুক্রবার গণমাধ্যমকে বলেন, কোনো নারী সদস্য ছাড়াই পুলিশ তার কক্ষে ঢুকে তল্লাশি শুরু করেন। তার বিছানা, কাপবোর্ড, সুটকেস এবং ড্রয়ারে তল্লাশি চালায়।

পূজা বলেন, আমি যখন জিজ্ঞাসা করলাম কী খুঁজছেন, তখন তারা আমাকে ধমক দিয়ে চুপ থাকতে বলেন। এরপর তারা আমাকে বলেন তাদের কাছে তথ্য আছে যে এই কক্ষে মদ রাখা আছে।

এই পরিস্থিতিতে বিব্রত হয়ে পূজার শাশুড়ি শীলা দেবী অজ্ঞান হয়ে যান।  তবে এরপরও পুলিশ তল্লাশি চালাতে থাকে।

শীলা দেবী জানান, তাদের পরিবারের কারো মদ্যপানের অভ্যাস নেই। তারপরও কোনো সার্চ ওয়ারেন্ট ছাড়াই পুলিশ এই তল্লাশি চালিয়েছে বলে জানান তিনি।

তবে এ ব্যাপারে স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তা কোনো মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।

এর আগে চলতি মাসের শুরুতে পাটনায় আরেক  নববধূর ঘরে মদের খোঁজে তল্লাশি চালিয়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছিল বিহার পুলিশ।

তবে মদের খোঁজে কেন এভাবে নববধূর ঘরে পুলিশ তল্লাশি চালাচ্ছে তা জানা যায়নি।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের এপ্রিল থেকে বিহারে মদ নিষিদ্ধ। নারীদের দাবির মুখেই  রাজ্যে মদ্যপান নিষিদ্ধ করা হয়েছে বলে শুক্রবার এক সমাবেশে জানিয়েছেন মূখ্যমন্ত্রী নিতীশ কুমার।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments