Sunday, August 14, 2022
spot_img
Homeবিজ্ঞান ও প্রযুক্তিভাসমান দুনিয়ায় বেঁচে থাকার লড়াই

ভাসমান দুনিয়ায় বেঁচে থাকার লড়াই

পুরো দুনিয়ার স্থলভাগ যদি প্রায় পুরোটাই ডুবে যেত, মানুষকে বসবাস করতে হতো ভাসমান ভেলার ওপর, কেমন হতে পারত সেই দুনিয়া? সেই প্রশ্ন থেকেই নির্মাতা রেডবিট ইন্টারঅ্যাকটিভ তৈরি করেছে গেম র‌্যাফট। যাঁরা আর্ক : সার্ভাইভাল ইভলভড বা সাবনটিকা খেলেছেন, তাঁদের কাছে র‌্যাফটের গেমপ্লে ঘরানা পুরোটাই পরিচিত মনে হবে।

আবহাওয়া পরিবর্তনের ফলে ভবিষ্যতের কোনো একসময় বিশ্বের সব বরফ গলে যায়, ডুবে যায় প্রায় সব ভূখণ্ড। পুরো মানবসভ্যতাই পড়ে পতনের মুখে।

অবধারিত বন্যা ঠেকানোর সব চেষ্টা শেষ করে একসময় বেঁচে থাকা মানুষেরা সিদ্ধান্ত নেয়, ভাসমান শহর গড়ে সেখানেই নতুন করে সভ্যতা শুরু করার। শুধু ক্ষমতাশালীরাই সেসব শহরে থাকার সুযোগ পায়, সাধারণ মানুষ কোনোভাবে নিজের মতো করে ভেলা আর প্ল্যাটফরম তৈরি করেই বসবাস শুরু করে। এমনই এক দুনিয়ায় জন্ম নেয় গেমের মূল চরিত্র, একজন স্কাউট। তার কাজ, তার ছোট ভেলা ভাসিয়ে খাবার, রসদ, ওষুধ ও বসবাসযোগ্য জায়গা খুঁজে বের করা।

স্কাউট হিসেবে কাজ করার পাশাপাশি গেমারের মূল কাজ হবে স্কাউটকে জীবিত রাখা এবং তার বেইস তৈরি। এর জন্য খাবার, পানি, অস্ত্রপাতি সব তৈরি করতে হবে, জোগাড় করতে হবে সেগুলোর জন্য প্রয়োজনীয় ম্যাটেরিয়ালস। বেইস তৈরি আর টিকে থাকাই গেমের মূল কাহিনি নয়, সঙ্গে খুঁজে বের করতে হবে কিংবদন্তির ‘ইউটোপিয়া’ নগরী, যেখানে এখনো টিকে আছে মানবসভ্যতা। এ যাত্রায় ধীরে ধীরে খুঁজে পাওয়া যাবে নতুন সব এলাকা, জনপদ, নতুন চরিত্রদের সঙ্গে। অন্যান্য সারভাইভাল গেমের মতো নয় র‌্যাফট, এর কাহিনির শেষ আছে, যদিও পরে কাহিনির বাকি অংশ ডিএলসির মাধ্যমে প্রকাশ করা হবে বলেই ধারণা সবার।

গেমটির গ্রাফিকস চমৎকার। সমস্যা বলা যায় গেমপ্লে। শুরুটা এতটাই ধীরে, অনেক গেমারের প্রথম ২ ঘণ্টায়ই খেলার ইচ্ছা চলে যেতে পারে। তবে একবার মোটামুটি বেইস তৈরি হয়ে গেলে বাকি পথ পাড়ি দিতে মোটেও খারাপ লাগবে না। বিশেষ করে যেহেতু একাধিক বেইস তৈরির দরকার নেই, তাই অন্যান্য সারভাইভাল গেমের মতো নতুন এলাকায় গিয়ে আবার নতুন করে বেইস তৈরি করে সময় নষ্ট করতে হবে না। বলা যায়, বারবার বেইস তৈরি করার বদলে কঠিন অংশটা শুরুতেই সেরে ফেলা যাবে। প্রয়োজন শুধু ধৈর্য।

মূল চরিত্রকে বাঁচিয়ে রাখতে খাবার, পানি, বাসস্থান, তার জন্য হাতিয়ার তৈরি, নতুন এলাকা জরিপ, বেইসের জন্য আপগ্রেড তৈরি করা, সেগুলো তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় কাঠ, খনিজ, ধাতু এসব সংগ্রহ এবং অন্যান্য চরিত্রের সঙ্গে বিনিময় করে নতুন জিনিস আনলক করাই গেমের মূল অংশ। আর বন্ধুদের সঙ্গে কো-অপ খেলার সুযোগ তো থাকছেই। গত ২০১৭ সাল থেকেই র‌্যাফট পরীক্ষামূলকভাবে প্রকাশিত অবস্থায় থাকলেও এ বছরের জুনেই সেটা পরীক্ষামূলক অবস্থা থেকে বেরিয়ে এসেছে।

খেলতে যা যা লাগবে

খেলতে লাগবে না তেমন শক্তিশালী পিসি, কোর আই৫ বা সমমানের প্রসেসর, আর জিটিএক্স ৭৫০-এর সমমানের জিপিউ এবং ১০ জিবি জায়গা থাকলেই যথেষ্ট।

বয়স

গেমটি কিশোর বয়সীদের জন্য উপযুক্ত।

লিংক : https://store.steampowered.com/app/648800/Raft/ 

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments