Thursday, June 20, 2024
spot_img
Homeধর্মভালো কথার মাধ্যমে জাহান্নাম থেকে আত্মরক্ষা

ভালো কথার মাধ্যমে জাহান্নাম থেকে আত্মরক্ষা

ভালো কথার পরিচয় : সালিহ আল উসাইমিন (রহ.) বলেন, আল-কালিমু তায়্যিব তথা ভালো কথা দুভাগে বিভক্ত। এক. প্রত্যক্ষ ভালো কথা। হাদিসের ভাষ্যমতে, লা ইলাহা ইল্লাহ, আল্লাহু আকবার, আলহামদুলিল্লাহ, লা হাওলা ওয়ারা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ, কোরআন তিলাওয়াত প্রভৃতি প্রত্যক্ষ ভালো কথার অন্তর্ভুক্ত।

দুই. পরোক্ষ ভালো কথা।

তা যেকোনো ভালো কথাকে অন্তর্ভুক্ত। (শারহু রিয়াদিস সালিহিন, ১/২৯০)

ইবনু মাসউদ (রা.) বলেন, ‘কোনো বান্দা যখন সুবহানাল্লাহি ওয়া বিহামদিহি, লা ইলাহা ইল্লাহু ওয়াল্লাহু আকবার পড়ে—তখন একজন ফেরেশতা তা তার ডানায় করে আসমানে নিয়ে যায়। যখন সে ফেরেশতা কোনো ফেরেশতাদের দলের পাশ দিয়ে অতিক্রম করে তখন তারা ওই ব্যক্তির জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করে। এভাবে জমিন থেকে আগত ফেরেশতাটি তা নিয়ে আল্লাহর দরবারে পৌঁছে যায়। ’ (তাফসিরে ইবনে কাসির, ৬/৫৩৭)

ভালো কথা সদকা : যেকোনো ভালো কথা এবং ভালো কাজ সদকার সমতুল্য। আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত রাসুল (সা.) বলেন, ‘ভালো কথা সদকা। ’ (সহিহ বুখারি, হাদিস : ২৯৮৯)

সালিহ আল উসাইমিন (রহ.) বলেন, সদকাটা শুধু সম্পদের সঙ্গে নির্দিষ্ট না। ব্যাপকার্থে এটি যেসব কাজ আল্লাহর নিকটবর্তী করে—তার সব কিছুকে শামিল করে। (শারহু রিয়াদিস সালিহিন : ১/২৯০)

ভালো কথা ঈমানের অঙ্গ: আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুল (সা.) বলেন, ‘যে ব্যক্তি আল্লাহ এবং আখিরাতের ওপর ঈমান আনে সে যেন তার মেহমানকে সম্মান করে। যে ব্যক্তি আল্লাহ এবং আখিরাতের ওপর ঈমান আনে সে যেন তার প্রতিবেশীকে কষ্ট না দেয়। যে ব্যক্তি আল্লাহ এবং আখিরাতের ওপর ঈমান আনে সে যেন ভালো কথা বলে অথবা নীরবতা অবলম্বন করে। ’ (বুখারি, হাদিস নং ৬১২০)

ভালো কথা পাপ মার্জনাকারী : হানি ইবনু ইয়াজিদ (রা.) রাসুল (সা.) থেকে বর্ণনা করেন, তিনি বলেন, ‘পাপ মোচনের অন্যতম মাধ্যম হলো, বেশি বেশি সালাম দেওয়া এবং ভালো কথা বলা। ’ (তিবরানি : ২২/১৮০)

জাহান্নাম থেকে মুক্তি দেয়: আদি ইবনু হাতিম (রা.) বলেন, একদা রাসুল (সা.) জাহান্নাম নিয়ে আলোচনা করলেন। এরপর তিনি মুখ ফিরিয়ে নিলেন এবং এক অস্বস্তির ভাব প্রকাশ করলেন আর বললেন, তোমরা নিজদের জাহান্নাম থেকে রক্ষা কোরো। এরপর তিনি আবার মুখ ফিরিয়ে নিলেন এবং এক অস্বস্তির ভাব প্রকাশ করলেন। অতঃপর বললেন, ‘তোমরা জাহান্নামের আগুন থেকে আত্মরক্ষা কোরো, যদিও তা এক টুকরা খেজুরের বিনিময়ে হয়। আর যে ব্যক্তির একটুকুও সমার্থ্য নেই, তাহলে সে যেন অন্তত ভালো কথা দিয়ে জাহান্নাম থেকে আত্মরক্ষা করে। ’ (সহিহ মুসলিম , হাদিস : ১৬৮৯)

ভালো কথা মর্যাদা বৃদ্ধি করে : আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত রাসুল (সা.) বলেন, ‘নিশ্চয় বান্দা কখনো কখনো আল্লাহর সন্তুষ্টির এমন কথা ফেলে—তার দ্বারা আল্লাহ তাআলা তার সম্মান বৃদ্ধি করে দেন। আবার কখনো কখনো বান্দা আল্লাহর অসন্তুষ্টির এমন কথা বলে ফেলে—যার পরিণতি সম্পর্কে তার কোনো ধারণাই নেই, অথচ সে কথার পরিণতিতে সে জাহান্নামে নিক্ষিপ্ত হবে। ’ (সহিহ বুখারি, হাদিস : ৬৪৭৮)

আল্লাহ তাআলা আমাদের সবাইকে আমল করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments