Thursday, February 22, 2024
spot_img
Homeজাতীয়বৃহত্তর ঐক্য: বিএনপির উচ্চপর্যায়ের কমিটিতে আছেন যারা

বৃহত্তর ঐক্য: বিএনপির উচ্চপর্যায়ের কমিটিতে আছেন যারা

পরিবর্তিত পরিস্থিতি ও আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে বৃহত্তর রাজনৈতিক ঐক্য গড়তে যাচ্ছে বিএনপি। এই ঐক্যে বিএনপির জোটভুক্ত দলগুলোর বাইরের রাজনৈতিক দলগুলোকেও অন্তর্ভুক্ত করতে চায় দলটি। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টভুক্ত দল, ইসলামপন্থি দল এবং বাম রাজনৈতিক দলগুলোকে নিয়ে এই ঐক্যে আনতে চায় বিএনপি। 

টার্গেট করা দলগুলোর সঙ্গে মতবিনিময় করার পরিকল্পনা নিয়েছে বিএনপি। নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের এক দফা দাবিতে আন্দোলন ইস্যুতে দলটি আগামী সপ্তাহে আনুষ্ঠানিকভাবে দলগুলোর সঙ্গে বসছে। 

এই ঐক্য প্রক্রিয়াকে এগিয়ে নিতে তিন সদস্যবিশিষ্ট উচ্চপর্যায়ের দুটি কমিটি গঠন করেছে বিএনপি।
 
একটি কমিটির নেতৃত্বে আছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তার সঙ্গে থাকবেন স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান ও নজরুল ইসলাম খান। এ কমিটি ২০-দলীয় জোট ও ঐক্যফ্রন্টের শরিক দলগুলোর সঙ্গে মতবিনিময় করবেন। 

অপর কমিটির নেতৃত্বে রয়েছেন স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। তার সঙ্গে আছেন স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু।

এ কমিটি বাম ও ইসলামি দলসহ অন্য রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে বৈঠক করবেন। বিএনপির একাধিক নীতিনির্ধারক যুগান্তরকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তারা জানান, বুধবার বিএনপি মহাসচিবের সঙ্গে আলোচনা করে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এ কমিটি গঠন করে দেন। তবে কবে কোন দলের সঙ্গে সভা করবে তা দু-একদিনের মধ্যে দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা চূড়ান্ত করবেন। 

সূত্র জানায়, আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দল বাদে নিবন্ধিত ও অনিবন্ধিত সব দলের সঙ্গে মতবিনিয়ম করবে বিএনপি। এতে নির্বাচনকালীন নির্দলীয়-নিরপেক্ষ সরকারের দাবিতে আন্দোলনের পাশাপাশি ক্ষমতায় গেলে কীভাবে রাষ্ট্র পরিচালনা করা হবে এ নিয়ে দলের অবস্থানের বিষয়ে কিছু অঙ্গীকারের কথা বিএনপির পক্ষ থেকে উপস্থাপন করা হবে। সব দলের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে একটি প্রতিবেদন তৈরি করে তা স্থায়ী কমিটিতে উপস্থাপন করবেন দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা। 

এর পর এক দফা দাবির পক্ষে একটি রূপরেখা দিয়ে কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। কর্মসূচিতে যেসব রাজনৈতিক দল একমত পোষণ করে মাঠে যুগপৎ আন্দোলনে থাকবে, তাদের নিয়ে বৃহত্তর ঐক্য বা জোট গঠন করা হবে।

এ বিষয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর যুগান্তরকে বলেন, নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দাবিতে একমত সরকার বিরোধী সব রাজনৈতিক দল। এখন এ ইস্যুতে আমরা বৃহত্তর ঐক্য গড়তে চাই। বিরোধী সব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আমরা শিগগিরই আনুষ্ঠানিকভাবে আলোচনা শুরু করতে যাচ্ছি। 

অপর কমিটির প্রধান বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় যুগান্তরকে বলেন, দাবি একটাই নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচন। আমরা দেশের মানুষের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠা করব। সে লক্ষ্যে সব গণতান্ত্রিক দল ও গণতন্ত্রমনা মানুষকে সঙ্গে নিয়ে আন্দোলন গড়ে তুলব। সে লক্ষ্যেই বিএনপি কাজ করছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য জানান, ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক জামায়াতে ইসলামীর সঙ্গে বসছে না বিএনপি। গত শুক্রবারের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে বৃহত্তর ঐক্য ইস্যুতে জামায়াতে ইসলামীর সঙ্গে মতবিনিময় সভা না করার নীতিগত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বৃহত্তর ঐক্য ইস্যুতে বামসহ বেশ কয়েকটি দলের সঙ্গে বিএনপি ইতোমধ্যে অনানুষ্ঠানিক আলোচনা করেছে। তারা জামায়াত থাকলে ঐক্যে আসবে না বলে জানিয়ে দিয়েছেন। তবে জোট থেকে জামায়াতকে বাদ দেওয়ার কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি বিএনপি। 

নীতিনির্ধারকরা জানান, বৃহত্তর জোট গঠনের জন্য দীর্ঘদিন ধরে চেষ্টা চলছিল। তবে তা হচ্ছিল না।  

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments