Monday, November 28, 2022
spot_img
Homeলাইফস্টাইল‘বিস্ফোরণে আহতরা রক্তের অভাবে নয়, মৃত্যু হবে ফ্লুইডের অভাবে’

‘বিস্ফোরণে আহতরা রক্তের অভাবে নয়, মৃত্যু হবে ফ্লুইডের অভাবে’

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ভয়াবহ বিস্ফোরণে আহতরা রক্তের অভাবে নয় তাদের মৃত্যু হবে ফ্লুইডের অভাবে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা। 

রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউট অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারির সহকারী অধ্যাপক ও ব্লাড ট্রান্সফিউশন বিশেষজ্ঞ ডা. আশরাফুল হক দগ্ধ রোগীদের নিয়ে ৩টি বিষয় উল্লেখ করেছেন। 

১. রক্তের অভাবে নয়, মৃত্যু হবে পর্যাপ্ত ফ্লুইডের অভাবে। কাজেই রক্তদাতারা অপেক্ষা করাই ভালো হাসপাতালে ভিড় না করে।

২. পুড়ে যাওয়া ব্যক্তির ভেইন পাওয়া খুবই দুরূহ। কাজেই এক্সপার্ট ছাড়া অন্য অন্য কারও সংশ্লিষ্ট বিভাগে ভিড় না করাই উচিত।

৩. প্রশিক্ষিত নার্সিং স্টাফ প্রয়োজন সবচেয়ে বেশি।আশপাশের জেলা থেকে হলেও বেশি নার্সিং স্টাফ আনা হয়ত দরকার।

এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে চাইলে রোববার দুপুরে ব্লাড ট্রান্সফিউশন বিশেষজ্ঞ ডা. আশরাফুল হক যুগান্তরকে বলেন, আমাদের শরীরের উপরে যে স্কিন (ত্বক) রয়েছে তার অন্যতম কাজ ফ্লুয়িড ধরে রাখা। এই ধরে রাখার ফলে পানি শরীর থেকে বেরিয়ে যেতে পারে না, নয়তো পানিশূন্যতা তৈরি হত। যখন পুড়ে যায় তখন পোড়া অংশের স্কিন না থাকায় দ্রুত পানিশূন্যতা শুরু হয়। তাই পোড়া রোগীর প্রধাণতম চিকিৎসা পর্যাপ্ত ফ্লুয়িড ব্যালেন্স করা। 

দগ্ধ রোগীদের কখন রক্তের প্রয়োজন হয় জানতে চাইলে বিশেষজ্ঞ এ চিকিৎসক বলেন, রক্তের প্রয়োজন হয় দ্বিতীয় ধাপে যখন অপারেশনের দরকার হয়।

প্রসঙ্গত, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের সোনাইছড়ি ইউনিয়নে বিএম কনটেইনার ডিপোতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় রোববার দুপুর পর্যন্ত ৩৩টি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতদের মধ্যে ৫ জন ফায়ার সার্ভিস কর্মী।

শনিবার রাতের ওই দুর্ঘটনায় চার শতাধিক দগ্ধ ও আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে শ্রমিক, পুলিশ সদস্য ও ফায়ার সার্ভিসকর্মীরা রয়েছেন। এদের মধ্যে বেশিরভাগকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। অনেককে বেসরকারি হাসপাতালে নেওয়া হয়।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments