Saturday, July 20, 2024
spot_img
Homeবিচিত্রবিশ্বের সবচেয়ে অপরিপক্ব যমজ

বিশ্বের সবচেয়ে অপরিপক্ব যমজ

মার গর্ভে মাত্র ১২৬ দিন বা ২২ সপ্তাহ থাকার পর জন্ম নিয়েছে আদিয়া এবং আদ্রিয়াল নাদারাজা। এ জন্য বিশ্বের সবচেয়ে অপরিপক্ব টুইন বা জমজ হিসেবে তাদেরকে স্বীকৃতি দিয়েছে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস। এর আগে ২০১৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রের আইওয়ার এক জমজ জন্ম নিয়েছিল ১২৫ দিন পরে। গিনেস বলেছে, যদি কোনো সন্তান ২২ সপ্তাহের এক ঘন্টা আগেও জন্মগ্রহণ করে, তাহলে তাকে বাঁচাতে হাসপাতালগুলোতে জীবন রক্ষাকারী ব্যবস্থা পর্যাপ্ত থাকে না। সাধারণত একটি সন্তান মায়ের গর্ভে থাকার সময় হলো ৪০ সপ্তাহ। এক্ষেত্রে কানাডার ওই দুটি সন্তানের জন্ম হয়েছে ১৮ সপ্তাহ আগেই। সন্তান দুটির মা সাকিনা রাজেন্দ্রম। তিনি বলেছেন, ২১ সপ্তাহ ৫ দিনের মাথায় তার প্রসব বেদনা শুরু হয়। চিকিৎসকরা বলেছেন, তার গর্ভস্থ শিশু উপযুক্ত অবস্থায় নেই। তাদের বেঁচে থাকার সম্ভাবনা নেই।

এটা ছিল সাকিনা রাজেন্দ্রমের দ্বিতীয়বার অন্তঃসত্ত্বার ঘটনা। প্রথমবার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর অন্টারিওতে বাসার কাছে একই হাসপাতালে দু’এক মাসের মধ্যে তার সন্তান নষ্ট হয়ে যায়। সন্তানের পিতা কেভিন নাদারাজা বলেন, চিকিৎসকরা তাদেরকে বলেছেন, তারা এত কম সময়ের অন্তঃসত্ত্বার প্রসব বেদনায় সহায়তা করতে সক্ষম নন। এ কথার পর তিনি পুরো রাত প্রার্থনা করতে বসেন। তার চোখ থেকে ঝরতে থাকে অশ্রু। 

নির্ধারিত সময়ের ২৪ থেকে ২৬ সপ্তাহ আগে যেসব শিশু জন্মগ্রহণ করে তাদেরকে রক্ষায় বেশির ভাগ হাসপাতালই চেষ্টা করেনা। এ অবস্থায় ওই দম্পতি টরোন্টোর মাউন্ট সিনাই হাসপাতালে ছুটে যান। সেখানে নবজাতকদের জন্য আইসিইউ আছে। প্রসব বেদনার দ্বিতীয় দিনে মিসেস সাকিনা বলেন, তাকে বলা হয়েছে যদি ২২ সপ্তাহের দু’এক মিনিট আগেও কোনো সন্তান জন্ম নেয়, তাহলে তাকে বাঁচানো যাবে না। তাকে মরার জন্য ফেলে রাখে। প্রচুর রক্তক্ষরণ সত্ত্বেও তিনি সন্তানকে আরও কয়েক ঘন্টা গর্ভে ধারণ করতে লড়াই করেন। মধ্যরাতের ১৫ মিনিট পরে সাকিনার অবস্থা আরও খারাপ হয়ে পড়ে। মায়ের গর্ভে ২২ সপ্তাহ অবস্থানের দুই ঘন্টারও কম সময়ের মধ্যে জন্মগ্রহণ করে ওই দুই নবজাতক। শুরুতে গুরুত্বর কিছু সমস্যা থাকলেও ওই দুটি সন্তানের বয়স এক বছর হতে চলছে।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments