Monday, May 20, 2024
spot_img
Homeআন্তর্জাতিকবহু বছর ধরে চলতে পারে ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ: ন্যাটো প্রধান

বহু বছর ধরে চলতে পারে ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ: ন্যাটো প্রধান

ইউক্রেন যুদ্ধ আগামী কয়েক বছর ধরে চলবে বলে হুঁশিয়ারি বার্তা দিলেন সামরিক জোট ন্যাটোর প্রধান জেন্স স্টল্টেনবার্গ। একই ধরনের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনও। একটি জার্মান গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ন্যাটো মহাসচিব স্টল্টেনবার্গ বলেন, এই যুদ্ধের কারণে আমাদের বড় ধরনের দাম পরিশোধ করতে হয়েছে। কিন্তু মস্কোর সামরিক উদ্দেশ্য সফল হলে আমাদের আরও বেশি মূল্য দিতে হতো। এ খবর দিয়েছে বিবিসি।

খবরে বলা হয়, স্টল্টেনবার্গ এবং জনসন উভয়েই মনে করেন যে, ইউক্রেনকে আরও বেশি অস্ত্র দিলে তাদের জয়ের সম্ভাবনা রয়েছে। ন্যাটো প্রধান বলেন, আমাদেরকে অবশ্যই কয়েক বছর ধরে যুদ্ধ চলবে সেই বাস্তবতার জন্য প্রস্তুত হতে হবে। একইসঙ্গে ইউক্রেনকে সমর্থন দেয়া বন্ধ করা যাবে না। যদিও এর জন্য আমাদের অনেক দাম দিতে হচ্ছে। শুধু সামরিক সহায়তার ব্যয়ই না, খাদ্য ও জ্বালানির দামও বাড়ছে।

সানডে টাইমসে প্রকাশিত এক লেখায় বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনও একই ধরনের কথা বলেছেন। তিনি রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে অভিযুক্ত করে বলেন, পুতিন নির্মমতার মধ্য দিয়ে ইউক্রেনকে ধুলায় মিশিয়ে দিতে চাইছেন।

তাই আমাদেরকে দীর্ঘ যুদ্ধের প্রস্তুতি নিতে হবে। সময় একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এখন ইউক্রেন কতটা নিজের প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে পারছে তার উপরে অনেক কিছু নির্ভর করছে। রাশিয়া আবারও হামলা বৃদ্ধির সক্ষমতা অর্জনের আগেই ইউক্রেনকে এটি করতে হবে।

চলতি সপ্তাহের শুরুতে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন ন্যাটোর এই মহাসচিব বলেছিলেন, এই মাসের শেষের দিকে স্পেনের মাদ্রিদে সামরিক জোটটির  একটি শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। সেখানে ইউক্রেনের জন্য একটি সহায়তা প্যাকেজে ন্যাটো সম্মত হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

এদিকে শনিবার মস্কোর বিরুদ্ধে জয়ী হওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ইউক্রেন। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ভোরে ইউক্রেনে হামলা শুরু করে রাশিয়ান সৈন্যরা।  গত মার্চে কিয়েভ দখলে করার চেষ্টা করলেও ইউক্রেনীয় বাহিনীর প্রতিরোধে তা পারেননি রুশ সেনারা। রুশ-ভাষী মানুষকে রক্ষা এবং রাশিয়াপন্থি বিচ্ছিন্নতাবাদীদের রক্ষার কথা বলে মস্কো বর্তমানে ডনবাস ভূখণ্ড দখলের চেষ্টা করছে।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments