Thursday, February 22, 2024
spot_img
Homeজাতীয়বর্তমান বাস্তবতায় সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়: জিএম কাদের

বর্তমান বাস্তবতায় সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়: জিএম কাদের

দেশে নির্বাচনের নামে সিলেকশন চলছে। বর্তমান বাস্তবতায়  কেউ চাইলেও সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। জার্মান ভিত্তিক একটি প্রতিষ্ঠানের রিপোর্টে বলা হয়েছে ত্রুটিপূর্ণ গণতন্ত্র থেকে বাংলাদেশ এখন স্বৈরশাসিত দেশে পরিণত হয়েছে। বর্তমান পদ্ধতিকে এগিয়ে নেয়াকে গণতন্ত্রের এগিয়ে যাওয়া বলা যায় না বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান জিএম কাদের।

শনিবার জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে বেশ কয়েকজন আইনজীবী জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন। জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফেডারেশন আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান বলেন, গণতন্ত্রের নামে দেশে অত্যাচারী স্বৈরতন্ত্র প্রতিষ্ঠা হয়েছে। উন্নয়নের নামে মানুষের ওপর অত্যাচার ও দেশে লুটপাট চলছে। অবকাঠামো উন্নয়ন মানুষের উন্নয়ন নয়। প্রকৃত উন্নয়ন হচ্ছে মানুষের জীবন মানের উন্নয়ন। বৈষম্যের বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধ থেকে স্বাধীনতা যুদ্ধে জয়ী হয়ে আমরা স্বাধীন দেশ পেয়েছি। বৈষম্যের মাধ্যমে সরকার একটি শ্রেণি সৃষ্টি করেছে।

অর্থ-সম্পদ দিয়ে তাদের ভাসিয়ে দেয়া হচ্ছে, তারা আইনের ঊর্ধ্বে। আর শতকরা ৯০ ভাগ মানুষকে যেন নর্দমায় ফেলা হয়েছে।

পোশাক শ্রমিকদের আন্দোলন প্রসঙ্গে জিএম কাদের বলেন, তাদের বিভিন্ন অপবাদ দেয়া হচ্ছে। আট হাজার টাকা দিয়ে কীভাবে একটি পরিবার চলে? বিশ^বাজারে প্রতিযোগিতায় টিকতে না পারলে শ্রমিকদের রেশন দেয়া হোক, দ্রব্যমূল্য কমিয়ে দেয়া হোক। যেন দাশ প্রথা চলছে, ওরা মরে গেলে যাক, ওদের দিয়ে আমাদের ব্যবসা করতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় জাতীয় পার্টি মহাসচিব মো. মুজিবুল হক চুন্নু বলেন, বর্তমান সরকার দেশের নির্বাচন ব্যবস্থা ধ্বংস করে দিয়েছে। কয়েকদিনের উপনির্বাচনেও এখন সরকারকে সিল মারতে হয়। বর্তমান ব্যবস্থায় সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। আনুপাতিক হারে নির্বাচন হলেই দেশে সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন সম্ভব। আমরা অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন চাই। শুধু নির্বাচনের বৈধতা দেয়ার জন্য নির্বাচনে যেয়ে কী করবো? আমার দলের স্বার্থ না হলে কী করবো? যে মনে করবে জাতীয় পার্টির সিট নাই তার সঙ্গে আমার প্রেমও নাই। সমানে সমান না হলে প্রেম- ভালোবাসা হয় না। আমরা ছাড়ছি বহুবার। এবার স্বার্থ ছেড়ে নিজেরা দেখি কী করা যায়। মারমুর যদি খাই খাবো। দেশের জন্য খাবো।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় পার্টি কো- চেয়ারম্যান কাজী ফিরোজ রশীদ বলেন, জাতীয় পার্টি কাউকে বৈধতা দেয়ার জন্য নির্বাচনে যাবে না। কারও ক্ষমতার সিঁড়ি হতেও নির্বাচনে যাবে না জাতীয় পার্টি। প্রমাণ হয়েছে সরকারি দলের কর্মীরা ১ মিনিটে ৪৫টি ভোট দিতে পারে। তাই বর্তমান ব্যবস্থায় নির্বাচনে যাওয়া হচ্ছে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় সাঁতার কাটা।

জাতীয় আইনজীবী ফেডারেশনের সভাপতি শেখ মুহাম্মদ সিরাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পরিচালনায় এই অনুষ্ঠানে প্রায় অর্ধশতাধিক আইনজীবী জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন। এ সময় দলটির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments