Friday, December 3, 2021
spot_img
Homeবিজ্ঞান ও প্রযুক্তি'ফেসিয়াল রিকগনিশন সিস্টেম' সরিয়ে নিচ্ছে ফেসবুক, চিন্তায় গ্রাহকরা

‘ফেসিয়াল রিকগনিশন সিস্টেম’ সরিয়ে নিচ্ছে ফেসবুক, চিন্তায় গ্রাহকরা

এবার থেকে ফেসবুক আর স্বয়ংক্রিয়ভাবে গ্রাহকদের মুখাবয়ব এবং ভিডিও চিহ্নিত করবে না। অর্থাৎ মুখাবয়ব পরিচয়ের পদ্ধতি (ফেসিয়াল রিকগনিশন সিস্টেম) তুলে নেয়ার কথা ঘোষণা করল ফেসবুক। এক বিবৃতি জারি করে ফেসবুকের আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স বিভাগের সহ-সভাপতি জেরোম পেসেন্টি বুধবার একথা জানিয়েছেন। ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, এই স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতি তুলে দেয়ার ফলে একশো কোটিরও বেশি গ্রাহকের মুখাবয়ব পরিচিতির ব্যক্তিগত টেমপ্লেটও সরিয়ে দেয়া হবে। ফলে এই সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবেন গ্রাহকরা। নিয়ন্ত্রকেরা এর পদ্ধতির ব্যবহারকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য একটি সুস্পষ্ট নিয়ম প্রদানের প্রক্রিয়ার মধ্যে রয়েছেন বলে জানিয়েছেন জেরোম । সেই সঙ্গে তিনি যোগ করেছেন মুখের স্বীকৃতির ব্যবহারকে একটি সীমিত ক্ষেত্রেই ব্যবহার করে শ্রেয় বলে মনে করে ফেসবুক। বিশ্বজুড়ে যখন প্রযুক্তি ব্যবহার এবং এর নিরাপত্তা নিয়ে হাজারও প্রশ্ন উঠছে তখনই বিশ্বের বৃহত্তম সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম ফেসবুক ফেসিয়াল রিকগনিশন সিস্টেম তুলে নিচ্ছে।সমালোচকরা বলছেন, ফেসিয়াল রিকগনিশন প্রযুক্তি – যা খুচরা বিক্রেতা, হাসপাতাল এবং অন্যান্য ব্যবসার সুরক্ষার স্বার্থে একটি জনপ্রিয় মাধ্যম , তা সরাসরি গোপনীয়তায় হস্তক্ষেপ করার ক্ষমতা রাখে। এর মাধ্যমে সহজেই নজরদারি চালানো সম্ভব যেকোনো গোপন তথ্য জানতে । IBM ফেসিয়াল রিকগনিশন পদ্ধতিতে পণ্য বিক্রয় স্থায়ীভাবে বন্ধ করেছে, এবং Microsoft Corp (MSFT.O) এবং amazon.com Inc (AMZN.O) -ও সেই একই পথে হাঁটার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ফেসবুক ব্যবহারকারীর নিরাপত্তা এবং তার প্ল্যাটফর্মগুলিতে বিস্তৃত অপব্যবহারের বিষয়টি মাথায় রেখেই এই পদক্ষেপ। গত সপ্তাহে নিজের নাম পরিবর্তন করেছে ফেসবুক , নতুন নাম মেটা প্ল্যাটফর্মস ইনক। সংস্থাটি বলেছে যে, ফেসবুকের দৈনিক সক্রিয় ব্যবহারকারীদের এক-তৃতীয়াংশেরও বেশি সোশ্যাল মিডিয়া সাইটে ফেস রিকগনিশন সেটিং বেছে নিয়েছে, এই সেটিং তুলে নেবার ফলে এক বিলিয়ন ইউজার প্রভাবিত হবেন ,তাদের মুছে ফেলতে হবে ‘ফেসিয়াল রিকগনিশন টেমপ্লেট” ।
ফেসবুকের একজন মুখপাত্র বলেছেন, এই অপসারণটি বিশ্বব্যাপী শুরু হবে এবং ডিসেম্বরের মধ্যে এটি সম্পূর্ণ হবে বলে আশা করা হচ্ছে। ডিজিটাল অধিকার গোষ্ঠী এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছে।

ইলেক্ট্রনিক ফ্রন্টিয়ার ফাউন্ডেশনের সিনিয়র স্টাফ অ্যাটর্নি অ্যাডাম শোয়ার্টজ বলেছেন যে যদিও ফেসবুকের পদক্ষেপ অন্যান্য প্রযুক্তি সংস্থাগুলির পদক্ষেপের পরে আসে, তবুও জনপ্রিয় ‘ফেসিয়াল রিকগনিশন সিস্টেম’ তুলে নেবার বিষয়টি জাতীয় ক্ষেত্রে একটি উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নিতে পারে । শুধু মুখাবয়ব পরিচিতি পদ্ধতিই নয়, ফেসবুকের এই সিদ্ধান্তের ফলে অটোমেটিক অল্ট টেক্সট (এএটি) পদ্ধতিও প্রভাবিত হবে। এই পদ্ধতির মাধ্যমে দৃষ্টিহীন ব্যক্তিরা কোনও ছবি সম্পর্কে ধারণা করতে পারেন। যদিও ফেসবুক অন্যান্য পণ্যগুলিতে ফেসিয়াল রিকগনিশন প্রযুক্তি ব্যবহার করার কথা অস্বীকার করেনি, বলেছে যে এটি এখনও পরিচয় যাচাইয়ের জন্য একটি “শক্তিশালী হাতিয়ার”। এদিকে এই বছরই ইলিনয়েসের একজন বিচারক ব্যবহারকারীদের সম্মতি ছাড়াই বায়োমেট্রিক ডেটা সংগ্রহ ও সংরক্ষণ করার অভিযোগে ফেসবুককে ৬৫০ মিলিয়ন ডলার নিষ্পত্তির অনুমোদন দিয়েছেন।

সূত্র : রয়টার্স

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments