Monday, November 28, 2022
spot_img
Homeবিনোদনফেসবুকে অপু-বুবলীর ‘ঠাণ্ডা’ লড়াই

ফেসবুকে অপু-বুবলীর ‘ঠাণ্ডা’ লড়াই

গতকাল বিকেলে অপু বিশ্বাস তার ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্টে ‘শাকিবের কাছ থেকে ডায়মন্ডের নাকফুল পেয়ে বুবলীর চোখে জল’ এমন শিরোনামের একটি নিউজের লিংক শেয়ার করেছেন।   

খবরটি শেয়ার করে বুবলীকে যে টিপ্পনি কেটেছেন সেটা সহজেই অনুমান করা যায়। অন্তত অপু বিশ্বাস বুবলীকে বোঝাতে চেয়েছেন শাকিব খানের নাকফুল দেওয়ার বিষয়টি তার কাছে হাস্যকর মনে হয়েছে।   

এর মাধ্যমেই  কয়েক বছর আগেই ইতিহাসই ঘটনাই যেনো পুনরাবৃত্তি হচ্ছে।

শাকিব খানকে কেন্দ্র করে সে সময় তুমুল দ্বন্দ্বে জড়ান অপু বিশ্বাস ও শবনম বুবলী। সেসময় অপু বিশ্বাস শাকিব খানের স্ত্রী ছিলেন। আর এখন বুবলী শাকিব খানের স্ত্রী।  

অপু বিশ্বাসের ওই পোস্টের পর বুবলীও ছেড়ে দেননি। ইশারা ইঙ্গিতে তিনিও খোঁচা দিলেন অপু বিশ্বাসকে।  

বুধবার বুবলীও তাঁর ফেসবুক হ্যান্ডেলে লিখেছেন, একজন হঠাৎ করেই বলে উঠলো  আরে ওই বেটি যে আপনাদের ছবি সহ নিউজ তার নিজের ফেইসবুক ওয়ালে বাঁধাই করে রাখসে এটাই তো আপনার মজা, এতেই তো বোঝা যায় তার শয়নে স্বপনে শুধুই আপনি, হাহাহা!

শাকিব-অপুর বিয়ে হয়েছিল ২০০৮ সালের ১৮ এপ্রিল। বিষয়টি গোপন ছিল।   ২০১৭ সালের ১০ এপ্রিল সন্তানসহ একটি বেসরকারি টেলিভিশনে লাইভে আসেন অপু বিশ্বাস। জানান, ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর কলকাতার একটি ক্লিনিকে তাদের সন্তানের জন্ম হয়। নাম রাখা হয় আব্রাম খান জয়। ক্যারিয়ারের কথা চিন্তা করেই বিয়ে ও সন্তানের বিষয়টি গোপন রাখেন শাকিব-অপু।

এরপর বিভিন্ন অভিযোগে তিক্ত হয়ে উঠে শাকিব-অপুর সংসার। তার মধ্যে ঢুকে পড়েন চিত্রনায়িকা শবনম বুবলী। ২০১৭ সালের ১৮ মার্চ হঠাৎ করেই শাকিব খানের ছবি শেয়ার করে বুবলী লেখেন, ফ্যামিলি টাইম। এরপর তেলে-বেগুনে জ্বলে ওঠেন অপু বিশ্বাস। মানতে পারেননি পোস্টটি। লাইভে এসে জানিয়ে দেন সবকিছু।

অনেক জলঘোলা হওয়ার পর ২০১৭ সালের ২২ নভেম্বর বিচ্ছেদের আবেদন করেন শাকিব খান। এটি কার্যকর হয় ২০১৮ সালের ১২ মার্চ। তার ঠিক চারমাস নয়দিন পর বুবলীকে বিয়ে করেন শাকিব খান।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments