Saturday, January 22, 2022
spot_img
Homeআন্তর্জাতিকপ্যাংগং হ্রদে সেতু তৈরি করছে চীন, ঘোর সমস্যায় ভারত

প্যাংগং হ্রদে সেতু তৈরি করছে চীন, ঘোর সমস্যায় ভারত

নতুন বছরের প্রথম দিনই পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় জাতীয় পতাকা উড়িয়েছিল চীন। এই খবরের রেশ কাটতে না কাটতেই ফের পূর্ব লাদাখে চীনরে নতুন পদক্ষেপের খবর পাওয়া গেল। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় আবার উত্তেজনা তৈরি করে প্যাংগং হ্রদে সেতু তৈরি করছে চীনা। এর ফলে ওই হ্রদের উত্তর ও দক্ষিণ পাড়ে দ্রুত সেনা মোতায়েন করতে পারবে

ভূ-গোয়েন্দা বিশেষজ্ঞ ড্যামিয়েন সাইমন দাবি করেছেন, যে প্যাংগং হ্রদের ধারে ২০২০ সালের মে মাসে তীব্র সংঘর্ষে জড়িয়েছিল ভারত ও চীনের সেনা, সেই প্যাংগং হ্রদের উপরেই একটি সেতু নির্মাণ করছে বেইজিং। অবশ্য সেতুটি, হ্রদের যে অংশ জুড়ে নির্মিত হচ্ছে, তা চীনা ভূখণ্ডের মধ্যেই পড়ে। কিন্তু, হ্রদের দুইদিক জুড়ে ফেলতে পারলে, ওই উচ্চ পাহাড়ি অঞ্চলে চীন অতি দ্রুত সৈন্য ও ভারী অস্ত্রশস্ত্র এদিক ওদিক করতে পারবে। প্যাংগং হ্রদের উত্তর পাড়ে ‘ফিংগার ৮’ থেকে মাত্র ২০ কিলোমিটার দূরে ব্রিজটি তৈরি করছে চীন। দুই দেশের মধ্যে ফিংগার ৮-কেই প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বলে মনে করে ভারত। এবার নিয়ন্ত্রণরেখার কাছে চীনের এহেন কার্যকলাপে রীতিমতো সিঁদুরে মেঘ দেখছে নিরাপত্তামহল।

সাইমন একটি টুইট করে দাবি করেছেন, সেতুটি হ্রদের একটি সংকীর্ণ অংশে তৈরি করা হচ্ছে, এবং এর কাজ প্রায় সম্পূর্ণ। গত বছর, ভারতীয় সৈন্যরা প্যাংগং হ্রদের দক্ষিণ তীরে মূল কৈলাশ রেঞ্জের উপরে চলে গিয়েছিল বলেই এই অঞ্চলে চীনা পিএলএ বাহিনীর থেকে এগিয়ে যেতে পেরেছিল। এই সেতুটি সম্পূর্ণ হয়ে গেলে সেই সুযোগ পাওয়া যাবে না। বিতর্কিত এলাকায় অতিরিক্ত সৈন্য মোতায়েন করার জন্য একাধিক রাস্তা পাবে চীন।

২০২০ সালের মে মাস থেকেই দুই পক্ষ মুখোমুখি হলেও, গালওয়ান নদীর ধারে ভারত ও চীনের মধ্যে দ্বন্দ্ব চরমে উঠেছিল ওই বছরের ১৫-১৬ জুনের মাঝের রাতে। রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ভারতীয় সেনার ২০ জন সদস্য নিহত হয়েছিলেন। অন্যদিকে, চীন তাদের পক্ষের কতজন সেনা হতাহত হয়েছিল, তা স্পষ্ট করে না জানালেও, বিভিন্ন সূত্রে দাবি করা হয়েছে, অন্তত ৫ জন চীনা পিএলএ সেনা নিহত হয়েছিল। তার পরের এক বছর ধরে দুই পক্ষে লাগাতার আলোচনা চলে সেনা প্রত্যাহার করা নিয়ে। শেষ পর্যন্ত ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল এবং চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই-এর মধ্যে আলোচনার পর, ২০২১-এর জুলাইয়ে ভারত ও চীন – দুই পক্ষই সংঘর্ষস্থল থেকে অন্তত ২ কিলোমিটার করে সরে যাওয়ার বিষয়ে একমত হয়।

এদিকে, প্যাংগং হ্রদের এই খবরের আগেই জানা গিয়েছিল, ১ জানুয়ারি গালওয়ান উপত্যকায় চীন তাদের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেছিল। চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমস, টুইটারে সেই অনুষ্ঠানের একটি ভিডিও টুইট করেছে। তারা জানিয়েছে ভিডিওটি ১ জানুয়ারির। এর আগে গত ডিসেম্বরে অরুণাচলের ১৫টি জায়গার নাম বদলে, জায়গাগুলো তাদের ম্যাপের অন্তর্ভুক্ত করেছিল চীন। সূত্র: দ্য টেলিগ্রাফ।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments