Sunday, March 3, 2024
spot_img
Homeজাতীয়পুলিশের সামনেই স্বতন্ত্র প্রার্থীর গাড়িতে হামলা, আহত ৩৫

পুলিশের সামনেই স্বতন্ত্র প্রার্থীর গাড়িতে হামলা, আহত ৩৫

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী তরিকুল ইসলামের সমর্থকদের বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র প্রার্থী অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ওমর ফারুকের গাড়িবহরে হামলার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ৪০টি মোটরসাইকেল ভাঙচুর ও ৩৫ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। শনিবার দুপুর ১টার দিকে উপজেলার ১নং চরজব্বর ইউনিয়নের চর হাসান ভূঁইয়ারহাট বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, শনিবার দুপুর ১২টার দিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ওমর ফারুক বিভিন্ন এলাকায় তার নির্বাচনি ক্যাম্প ভাঙচুর করে অগ্নিসংযোগ, কর্মীদের ওপর হামলা, প্রচার কাজে বাধা ও ভোটারদের হুমকি-ধামকি দেওয়ার প্রতিবাদে এবং সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিতে চরজব্বর ইউনিয়নের ছ্যাইয়াখালী বাজারে সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলন শেষে গাড়ি নিয়ে ফেরার পথে ইউনিয়নের চরহাসান ভূঁইয়ারহাট বাজারে এসে পৌঁছলে নৌকার প্রার্থী তরিকুল ইসলামের সমর্থক মঞ্জু, আজাদ, নবী মেম্বারের নেতৃত্বে শতাধিক ব্যক্তি লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীর গাড়িবহরে হামলা চালায়। এ সময় পিটিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীর ৩৫ সমর্থককে আহত করে এবং ৩০-৪০টি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে।

স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ওমর ফারুকের অভিযোগ, নৌকা প্রার্থীর সমর্থকরা তার গাড়িবহরে আকস্মিক হামলা চালিয়ে তার অনুসারীদের পিটিয়ে আহত ও মোটরসাইকেল ভাঙচুর করেছে।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে নৌকার প্রার্থী তরিকুল ইসলাম বলেন, ঘটনাটি সাজানো নাটক। আমি ওই সময় ঘটনাস্থলে ছিলাম না। পরে জানতে পেরেছি মোটরসাইকেলে কিছু ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী অস্ত্র দেখিয়ে চরহাসান ভূঁইয়ার হাট বাজারে যায়। এ সময় স্থানীয় জনতা উত্তেজিত হয়ে তাদের প্রতিহত করে।

চরজব্বর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জিয়াউল হক হামলার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পুলিশ ৫৫ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে তাৎক্ষণিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে এখন পর্যন্ত কতজন আহত হয়েছেন এবং কতটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়েছে তার প্রকৃত তথ্য জানা যায়নি। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।  

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments