Tuesday, May 28, 2024
spot_img
Homeআন্তর্জাতিকপুতিনের পছন্দের জায়গায় আলোচনায় বসতে চান না জেলেনস্কি

পুতিনের পছন্দের জায়গায় আলোচনায় বসতে চান না জেলেনস্কি

রাশিয়ার আগ্রাসন বন্ধে মস্কোর সঙ্গে আলোচনায় বসতে রাজি আছেন বলে জানিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভোলোদিমির জেলেনস্কি। তবে তিনি বলেন, রাশিয়ার পছন্দ করা স্থান বেলারুশে তিনি আলোচনায় বসতে চান না।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের খবরে বলা হয়, আজ রবিবার সকালে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট দপ্তরের ওয়েবসাইটে নিজের এই অবস্থান তুলে ধরেন প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি।

ইউক্রেনের সঙ্গে আলোচনার জন্য বেলারুশের রাজধানী মিনস্কে বসার প্রস্তাব দিয়েছে রাশিয়া।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলোর খবরে বলা হচ্ছে, রাশিয়ার একটি প্রতিনিধিদল আলোচনায় বসতে ইতিমধ্যে বেলারুশে পৌঁছেছে। হামলা শুরুর পর জেলেনস্কি সরাসরি আলোচনায় বসার জন্য রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন।

প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি বেলারুশে আলোচনা বসার বিষয়টি নাকচ করে দিয়ে বলেন, ‘চলমান যুদ্ধ বন্ধ করার জন্য ইউক্রেন ও রাশিয়ার আলোচনার বিষয়ে অনেক কথা শুনছি। আলোচনার স্থান হিসেবে প্রায়ই মিনস্কের নাম আসছে। ’ তিনি বলেন, আলোচনার স্থান হিসেবে মিনস্কের নাম ইউক্রেন বা বেলারুশ করেনি। এই স্থান পছন্দ করেছে রুশ নেতৃত্ব।  

ইউক্রেনে হামলার জন্য বেলারুশ ভূখণ্ড ব্যবহার করেছে রাশিয়া। রুশ বাহিনীর একটি অংশ বেলারুশ হয়ে ইউক্রেনে প্রবেশ করেছে। বেলারুশ সরকারও এ ব্যাপারে সরাসরি সমর্থন দিয়েছে।

বেলারুশের উদ্দেশে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট সরাসরি বলেন, ‘আপনাদের ভূখণ্ড ব্যবহার করে আগ্রাসন চালানো না হলে আমরা মিনস্কে আলোচনায় বসতাম। আপনারা নিরপেক্ষ হলে মিনস্কে আলোচনা করা যেত। কিন্তু এখন আমরা মিনস্কে বসতে পারছি না। ’

জেলেনস্কি বলেন, ‘আমরা অবশ্যই শান্তি চাই, আলোচনায়ও বসতে চাই। আমরা যুদ্ধের অবসান চাই। পোল্যান্ডের ওয়ার শ, স্লোভাকিয়ার ব্রাতিস্লাভা, তুরস্কের ইস্তাম্বুল ও আজারবাইজানের বাকু শহরে আলোচনায় বসতে রাশিয়াকে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। অন্য যেকোনো শহরও আলোচনার স্থান হতে পারে, যে শহর থেকে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়নি। ’

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments