Thursday, June 20, 2024
spot_img
Homeজাতীয়পিকে সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে আরও এক মামলা

পিকে সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে আরও এক মামলা

দেশের আর্থিক খাতের আলোচিত জালিয়াত প্রশান্ত কুমার (পিকে) হালদার সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে কাগুজে প্রতিষ্ঠানের নামে ঋণ দেখিয়ে ৩৪ কোটি ৩৫ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে আরও একটি মামলা করা হয়েছে। 

দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে (ঢাকা-১) সংস্থাটির সহকারী পরিচালক রাকিবুল হায়াত বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার মামলাটি করেন। এতে ন্যাচার এন্টারপ্রাইজ নামক কাগুজে প্রতিষ্ঠানের নামে ঋণ দেখিয়ে ওই অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে।

মামলায় পিকে হালদার, ন্যাচার এন্টারপ্রাইজের পরিচালক মমতাজ বেগম ও ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ের পরিচালক নওশেরুল ইসলামসহ ২১ জনকে আসামি করা হয়েছে। মামলায় পিকে হালদারসহ তিনজনকে আসামি করা হয়েছে। অপর দুই আসামি হলেন- ন্যাচার এন্টারপ্রাইজের পরিচালক মমতাজ বেগম ও ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ের পরিচালক নওশেরুল ইসলাম।

মামলার এজাহারে বলা হয়, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে ন্যাচার ইন্টারন্যাশনালের নামে ভুয়া কাগজপত্র তৈরি করে সেগুলোকে সঠিক বলে ব্যবহার করেছেন। কাগুজে প্রতিষ্ঠানটির নামে ফাস ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট থেকে ৪৫ কোটি টাকা ঋণ মঞ্জুর করেন। সেখান থেকে ৩৪ কোটি ৩৫ লাখ টাকা উত্তোলন করে আসামিরা আত্মসাৎ করেন।

ফাস ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট থেকে ৫২৩ কোটি টাকা আত্মসাতের ঘটনায় ১৩টি মামলার অনুমোদন দেওয়া হয়। এর আগে ১৬ ফেব্রুয়ারি দুদক সচিব মাহবুব রহমান সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। 

প্রতিষ্ঠানটি থেকে এক হাজার ৩০০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগের অনুসন্ধান শেষে প্রাথমিকভাবে ৫২৩ কোটি টাকা আত্মসাতের প্রমাণ পাওয়া যায়। ফাস ফাইন্যান্স থেকে এন্ডবির ট্রেডিংয়ের নামে ৪৪ কোটি টাকা, ন্যাচার এন্টারপ্রাইজ ৪৫ কোটি, নিউট্রিক্যাল ৩০ কোটি, এসএ এন্টারপ্রাইজ ৪২ কোটি, সুখাদা ৪০ কোটি, এমটিবি মেরিন ৪০ কোটি, হাল ইন্টারন্যাশনাল ৪৫ কোটি, স্বন্দীপ করপোরেশন ৪০ কোটি, দিয়া শিপিং ৪৪ কোটি, মুন এন্টারপ্রাইজ ৩৫ কোটি, বর্ণ ৩৮ কোটি, আরবি ৪০ কোটি ও মেরিন ট্রাস্টের নামে ৪০ কোটি টাকা আত্মসাৎ করা হয়েছে। সব মিলিয়ে ৫২৩ কোটি টাকা লোপাটের ঘটনায় করা ১৩ মামলায় পিকে হালদারসহ ৩৫ জনকে আসামি করা হবে। এ নিয়ে পাঁচটি মামলা করা হলো। বাকি ৮টি শিগগিরই করা হবে।

পিকে হালদার এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক ছিলেন। তার বিরুদ্ধে চারটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে প্রায় সাত হাজার কোটি টাকা লোপাটের অভিযোগ অনুসন্ধান করছে দুদক। পিকে সিন্ডিকেটের অর্থ আত্মসাতের ঘটনায় দুদক অদ্যাবধি ২২টি মামলা করেছে। অনুমোদিত ১৩টি হলে মামলা হবে ৩৫টি। মামলাগুলোতে ২ হাজার কোটি টাকার ওপর আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে। অদ্যাবধি এসব মামলায় ১১ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। দুদকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এসব মামলায় আদালত ৬৯ জনকে দেশত্যাগের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন। 

এ ছাড়া ২০২১ সালের অক্টোবরে পিকে হালদারের বিরুদ্ধে করা অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় আদালতে চার্জশিটও (অভিযোগপত্র) দেওয়া হয়েছে। 

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments