Sunday, June 16, 2024
spot_img
Homeবিনোদনপরীমনিকে কেন মাফ করেছেন, জানালেন মিম

পরীমনিকে কেন মাফ করেছেন, জানালেন মিম

প্রাক্তন স্বামী অভিনেতা শরিফুল রাজকে নিয়ে চিত্রনায়িকা বিদ্যা সিনহা মিমের সঙ্গে পরীমনির মনোমালিন্যের ঘটনা প্রায় সবারই জানা। এ ঘটনায় দুই অভিনেত্রী জড়িয়ে ছিলেন বাগবিতণ্ডায়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও একের পর এক পোস্টের মধ্য দিয়ে স্নায়ুযুদ্ধ চলে দুজনের।

সম্প্রতি ‘ঢাকা ফ্যাশন ডে’ অনুষ্ঠানের এক মঞ্চে দেখা গেল ঢাকাই সিনেমার এই দুই নায়িকাকে।

মঞ্চে দুজন কাঁধে হাত রেখে মজার কোনো বিষয় নিয়ে একসঙ্গে হাসিতে ফেটে পরার দৃশ্য দেখা যায়। সেখানে মিমকে পেয়ে পরীমনি তাকে জড়িয়ে ধরে তার পূর্বের কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চান। এ সময় সেখানে অন্য তারকা এবং অনুষ্ঠানের আয়োজকরাও উপস্থিত ছিলেন।

পরীর এমন কর্মকাণ্ডে মিম শুরুতে একেবারেই অপ্রস্তুত হয়ে পড়েন। কী বলবেন বুঝতে পারছিলেন না। পরে নিজেকে সামলে নিয়ে পরীর সঙ্গে হাসিমুখেই কথা বলেন তিনি।

এই ইস্যুতে মিম সোজাসাপ্টা স্বীকার করেছেন, পরীর সঙ্গে তার যে মনোমালিন্য ছিল, তা দূর হয়ে গেছে ‘ঢাকা ফ্যাশন ডে’ অনুষ্ঠানের মঞ্চে।

মিম বলেন, দুই বছর আগে পরীমনি আমার জন্মদিনের রাতে ফেসবুকে একটি মিথ্যা স্ট্যাটাস দিয়ে আমাকে সবার সমানে অপমান করেছিল, হেয় করেছিল। আমি খুব কষ্ট পেয়েছিলাম। এর পর থেকে আমি এড়িয়ে চলি তাকে।

এদিন স্টেজে ওঠার আগে মঞ্চের পেছনে সবার সঙ্গে আমিও দাঁড়িয়ে আছি। হঠাৎ পরীমনি এসে আমাকে জড়িয়ে ধরে বলতে থাকে, ‘এই তুমি আমার ওপর রাগ করে আছো? আমি সরি, ওসব কথা আর মনে রেখ না। ওসব ভুলে যাও। এই তুমি আমার বাচ্চাকে ভালোবাসো না?’ এ ধরনের নানা কথা বলতে থাকে। আমি তো অপ্রস্তুত হয়ে গিয়েছিলাম। হঠাৎ করেই এসে জড়িয়ে ধরার বিষয়টি আমি প্রস্তুত ছিলাম না। ওই সময় সাবিলা নূর, তানজিন তিশাসহ অনেকেই বিষয়টি দেখেছেন।

মিম জানালেন, মঞ্চে ওঠার আগে এমনকি অনুষ্ঠান শেষে চলে আসার সময়ও আরও দুবার একইভাবে জড়িয়ে ধরে ওই সব কথাই বলতে থাকেন পরীমনি।

মিম আরও বলেন, ‘প্রতিবার ওই একই কথা। আমার বাচ্চাকে ভালোবাসো না? আমার ওপর রাগ রাইখো না। যা হওয়ার হয়েছে, ভুলে যাও। সবকিছুর জন্য আমি সরি।’

তখন পরীমনিকে আপনি কী বলেছিলেন, জানতে চাইলে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘আমি বলেছি, অবশ্যই বাচ্চাকে ভালোবাসি। তার বাচ্চাকে দেখতে তার বাসায়ও গিয়েছিলাম একসময়, সেটাও বলেছি তাকে। তবে আমি যখন পরীকে উলটো জিজ্ঞাসা করেছিলাম এই বলে ‘পরী, আমার তো কোনো দোষ ছিল না, তাহলে তুমি কেন এ ধরনের মিথ্যা স্ট্যাটাস দিয়ে দেশবাসীর কাছে আমাকে ছোট করেছ। সে সময় আমি খুব কষ্ট পেয়েছিলাম?’ তখন পরী বলেছে, ‘আরে ওসব ভুলে যাও। আমি সরি ওসবের জন্য। আমাকে ক্ষমা করে দাও। ওসব কথা মনে রাইখো না, কষ্ট নিয়ো না প্লিজ।’

তাহলে আপনি পরীকে কি ক্ষমা করে দিয়েছেন, এ ব্যাপারে মিম বলেন, ‘যেভাবে আমাকে বারবার জড়িয়ে ধরে নিজের ভুল স্বীকার করল, অনুতপ্ত হলো, মানুষমাত্রই তো ভুল হয়, আমার আর কী করার আছে। ক্ষমা করে দিয়েছি।’

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments