দীর্ঘদিন রিহ্যাব আবাসিক হোটেলের মালিক ও ম্যানেজারের যোগসাজসে বিভিন্ন এলাকা থেকে নারী সংগ্রহ করে ওই হোটেলে পতি’তাবৃত্তির ব্যবসা চলছিল। রিহ্যাব আবাসিক হোটেল সাতকানিয়া উপজেলার কেরানীহাট এলাকায় অবস্থিত। গতকাল শনিবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে অভিযান চালিয়ে অসা’মাজিক কাজে লি’প্ত থাকার অভি’যোগে হোটেল ম্যানেজারসহ ৩জনকে গ্রে’প্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তা’রকৃতরা হলেন হোটেল ম্যানেজার সাতকানিয়া পৌরসভার ২নম্বর ওয়ার্ড ছগিরা পাড়া এলাকার মো. মফিজুর রহমানের ছেলে সাহাব উদ্দিন(২১), বান্দরবান পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ড মোহাম্মদপুর এলাকার মো. সেকান্দারের ছেলে মো. লিটন(২৪) ও এক নারী।

থানা সূত্রে জানা গেছে, সাতকানিয়া থানার এসআই মশিউর রহমান খান, মাহবুব আলম, মো. জিহাদ আলী ও এএসআই মো. আরিফুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে মাদ’কবি’রোধী নিয়মিত অভি’যানে যান। রিহ্যাব হোটেলে অসা’মাজিক কার্যক্রম চালানোর গো’পন সংবাদ পেয়ে ওই হোটেলে অভিযানে যায়। ওই আবাসিক হোটেলের তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম তলা থেকে ম্যানেজারসহ তিনজনকে আ’টক করা হয়।

এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে রিহ্যাব আবাসিক হোটেলের মালিক উপজেলার ছদাহা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড ছোট ঢেমশা মেহের আলী মুন্সির বাড়ি এলাকার মৃত ইউনুছের ছেলে আবদুল আজিজ গা ঢাকা দেন। স্বীকারোক্তিতে গ্রেফতারকৃতরা জানায়, দীর্ঘদিন রিহ্যাব আ’বাসিক হো’টেলের মালিক ও ম্যানেজারের যো’গসাজশে বিভিন্ন এলাকা থেকে নারী ও খ’দ্দের সংগ্রহ করে অ’নৈতিক ব্যবসা চালিয়ে আসছিল।

সাতকানিয়া থানার ওসি মো. সফিউল কবীর বলেন, কেরানীহাট রিহ্যাব আবাসিক হোটেলের মালিক ও ম্যানেজারের যোগসাজশে পুলিশের চোখে ফাঁকি দিয়ে বিভিন্ন এলাকা থেকে পতি’তা সংগ্রহ করে হোটেলের ভেতরে পতিতাবৃত্তির অ’বৈধ ব্যবসা চালিয়ে আসছিল। গ্রেফতারকৃত ও পলাতক মালিকের বিরুদ্ধে মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনে মা’মলা দায়ের করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

English