Sunday, June 16, 2024
spot_img
Homeকমিউনিটি সংবাদ USAনিউইয়র্কে ষষ্ঠ বারের মত প্রভাতফেরির মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ একাডেমি অব ফাইন আর্টস-বাফা’র...

নিউইয়র্কে ষষ্ঠ বারের মত প্রভাতফেরির মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ একাডেমি অব ফাইন আর্টস-বাফা’র একুশ উদযাপন

 নিউইয়র্কে বাংলাদেশ একাডেমি অব ফাইন আর্টস-বাফা ষষ্ঠ বারের মত প্রভাতফেরির মধ্য দিয়ে উদযাপন করেছে মহান একুশে ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। ২১শে ফেব্রুয়ারী সোমবার সকালে প্রভাত ফেরি, শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে যথাযোগ্য মর্যাদায় দিবসটি উদযাপন করে বাফা। খবর ইউএসএনিউজঅনলাইন.কম’র।

নতুন প্রজন্মের ব্যাপক অংশ গ্রহণে বাঙালী অধ্যুষিত স্টারলিং-বাংলাবাজারের বাফা কার্যালয়ের সামনে থেকে প্রভাতফেরিটি শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বাফার কার্যালয়ের সামনে স্থাপিত অস্থায়ী শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ করা হয়। একুশের গান গেয়ে ফুল হাতে প্রথমে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বাফার নির্বাহী পরিচালক মারজিয়া স্মৃতির নের্তৃত্বে বাফার শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবকরা। এরপর এক এক করে শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পন করেন নতুন প্রজন্ম, বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ নানা শ্রেণী পেশার মানুষ।
বাফার নির্বাহী পরিচালক মারজিয়া স্মৃতির সার্বিক তত্ত্বাবধানে প্রভাতফেরীতে সহযোগিতায় ছিলেন বাফার সদস্য ফারজানা ইয়াসমিন, জান্নাতুল আরা, মনিরা নূর, শান্তনুর রহমান ও আফতাব উজ্জামান স্পন্দন। সহযোগিতায় ছিল কমিউনিটি বোর্ড ৯।
প্রভাতফেরী শেষে বাফা সহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন ও সাধারণ মানুষ বাফা কার্য্যালয়ের সামনে স্থাপিত অস্থায়ী শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

সিরাজ উদ্দিন আহমেদ সোহাগ ও গোলাম মোস্তফার পরিচলনায় এসময় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় অ্যাসেম্বীওম্যান কারিনাজ রেইজ, সিটি কাউন্সিলওম্যান আমান্ডা ফারিয়াজ, বাফা’র উদ্যোক্তা ফরিদা ইয়াসমীন, কমিউনিটি নেতা আব্দুস শহীদ, রাজনীতিক আব্দুর রহিম বাদশা, বাংলাবাজার বিজনেস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আব্দুল ওয়াদুদ চৌধুরী জাকি, সহ সভাপতি মো. খলিলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক সাঈদুর রহমান লিংকন, রাসেল রহমান সহ কমিউনিটি’র বিশিষ্ট ব্যক্তি বর্গ।
পরে শামীম আরা বেগমের পরিচালনায় বাফার শিল্পীদের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। বাফার সদস্যরা কবিতা আবৃত্তি, দেশের গান ও নৃত্য পরিবেশন করেন।
বাফার নির্বাহী পরিচালক ও নৃত্য বিভাগের শিক্ষক মারজিয়া স্মৃতির পরিচালনায় অনুষ্ঠানে মনোমুগ্ধকর নৃত্য পরিবেশন করে বাফার শিক্ষার্থীরা।
সাংস্কৃতিক পর্বে অংশ নেন শুক্লা রায়, সুলতানা ফিরদৌসি, শেলি জামান খান, পারভীন সুলতান, তাহরিনা প্রীতি, বেনজির শিকদার, গেলাম মোস্তফা, রনি আহমেদ, জান্নাতুল আরা, গোপন সাহা ও ক্লারা রোজারিও।
আফতাব উজ্জামান স্পন্দনের পরিচালনায় সঙ্গীত পরিবেশন করেন কৃস্টিনা লিপি রোজারিও, মেরিস্টেলা আহমেদ শ্যামলী, মুক্তা ধর, টিপু খান, প্যাট্রিক রোজারিও, সুতপা মন্ডল, নুসরাত জাহান এলিন ও শম্পা রহমান। নাট্যাংশে ছিলেন শীতেস ধর।
বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে ২১শে ফেব্রুয়ারীর ঊষালগ্নে সর্বস্তরের ছাত্র-জনতার প্রভাতফেরির মত এ প্রবাসেও একইভাবে শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ্য অর্পন করার অনুভূতি ভাষায় ব্যক্ত করার মত নয়। তারা বলেন, প্রবাসে জন্ম নেয়া ও বেড়ে ওঠা নতুন প্রজন্মকে ভাষা আন্দোলন তথা বাংলাদেশের ইতিহাস-ঐতিহ্য জানাতে মুখ্য ভূমিকা রাখবে এমন আয়োজন। অমর একুশের আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে বাফার এ আয়োজন মূলধারায়ও নতুন বার্তা দেবে।
প্রভাতফেরীতে যোগ দেয়ার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানান বাফা’র উদ্যোক্তা ফরিদা ইয়াসমীন ও নির্বাহী পরিচালক মারজিয়া স্মৃতি।
উল্লেখ্য, নিউইয়র্কে বাফাই একমাত্র প্রতিষ্ঠান যারা ২১ ফেব্রুয়ারী প্রভাতফেরির মাধ্যমে ষষ্ঠ বারের মত একুশ উদযাপন করলো। নানা শ্রেণী-পেশার প্রবাসীরা প্রভাতফেরিসহ একুশের অনুষ্ঠানমালায় যোগ দেন।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments