Monday, May 20, 2024
spot_img
Homeকমিউনিটি সংবাদ USAনিউইয়র্ক টাইমস স্কয়ারে ১০ সহস্রাধিক মানুষের অংশগ্রহণে বাংলা নববর্ষ বরণ

নিউইয়র্ক টাইমস স্কয়ারে ১০ সহস্রাধিক মানুষের অংশগ্রহণে বাংলা নববর্ষ বরণ

দশ সহস্রাধিক মানুষের উপস্থিতিতে নিউ ইয়র্কের টাইমস স্কয়ারে বরণ করে নেয়া হয়েছে ১৪৩১ বঙ্গাব্দকে। বাঙালির ইতিহাসে প্রথমবারের মতো সহস্র কণ্ঠের গানে বরণ করে নেয়া হয় বাংলা নতুন বছর।
আজ ঢাকায় প্রাপ্ত এক সংবাদবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয় , বাংলাদেশ সময়ের সঙ্গে মিল রেখে ১৩ এপ্রিল স্থানীয় সময় শনিবার দুপুরে টাইমস স্কয়ারে মঙ্গল শোভাযাত্রার মাধ্যমে শুরু হয় বর্ষবরণ আয়োজন। এনআরবি ওয়ার্ল্ড ওয়াইডের দুইদিন ব্যাপী আয়োজন শেষ হয় ১৪ এপ্রিল মধ্যরাতে জ্যাকসন হাইসের ডাইভারসিটি প¬াজায়। আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলের এ আয়োজনে বাংলাদেশিদের সঙ্গে যুক্ত হয়েছিলেন ভারত, থাইল্যান্ড এবং নেপালের শিল্পী ও দর্শনার্থীরা । বাংলাদেশ থেকে মমতাজ বেগম এবং পশ্চিমবঙ্গ থেকে এসেছিলেন পার্বতী দাস বাউল। একই ডিজাইনের পোশাকে সহস্র মানুষ মেতে উঠেছিলেন আনন্দ উৎসবে।
বিশ্ব বাঙালির ১৪৩১ বাংলা বর্ষবরণের আহ্বায়ক সৈয়দ হাসান ইমাম মঙ্গল শুভযাত্রা অনুষ্ঠানের উদ্বোধনে বলেন, ‘টাইমস স্কয়ারে হাজার হাজার বাঙালির উপস্থিতিতে মঙ্গল শোভাযাত্রা এবং সহস্র কন্ঠে বাংলা নতুন বছরকে বরণ করে নেয়ার যে ইতিহাস সৃষ্টি করেছে বাঙালি অভিবাসীরা তা অবিস্মরণীয়। এ আয়োজন দেখে পৃথিবীর নানান দেশের বাঙালিরা বর্ষবরণ উদযাপন করবেন সেই স্বপ্ন দেখছি। ’
শিল্পি মমতাজ বেগম রাত পৌনে দশটায় টাইমস স্কয়ারের মঞ্চে উঠে দর্শক দেখে অভিভূত হয়ে বলেন, ‘কনকনে শীতের মধ্যে হাজার দশেক মানুষ আমার গান শুনতে দাঁড়িয়ে আছে এটা আমার জন্য অসম্ভব সম্মানের।’
নিউইয়র্কে নিযুক্ত বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল নাজমুল হুদা বলেন, ইতিহাস সৃষ্টিকারী এই আয়োজন আগামী প্রজন্মকে বাংলা সংস্কৃতি চর্চায় উদ্বুদ্ধ করবে।
আয়োজক সংগঠন এনআরবি ওয়ার্ল্ড ওয়াইডের সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল লিটনের পরিচালনায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন নিউইয়র্ক সিটি মেয়র অফিসের প্রধান প্রশাসনিক কর্মকর্তা মীর বাসার। তিনি মেয়র এরিক এডাম এর পক্ষ থেকে বলেন, বাঙালির সার্বজনীন উৎসবের বর্ণাঢ্য এই আয়োজন দেখে আমরা অভিভূত। সকল ধর্ম বর্ণ জাতি গোষ্ঠীর মানুষের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় নিউ ইয়র্ক সিটিকে আমরা আরো প্রাণবন্ত এবং আনন্দমুখর করে গড়ে তুলবো। এ সময় অতিথি হিসেবে নিউইয়র্ক সিটির আরো কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন দেশের এম্বাসেডররা বক্তব্য রাখেন।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে, সহস্র কন্ঠে বিশ্ব বাঙালির ১৪৩১ বাংলা বর্ষবরণের প্রধান পৃষ্ঠপোষক আইএফআইসি ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহ আলম সারওয়ার বলেন, ‘বাংলাদেশের কল্যাণে বাঙালি সংস্কৃতির বিকাশে আইএফআইসি ব্যাংক সব সময় সঙ্গে আছে। আমেরিকার অভিবাসীরা টাইমস স্কয়ারে যে অভূতপূর্ব আয়োজন করেছেন, তার সাক্ষী এবং সম্পৃক্ত থাকতে পেরে আমরা গর্বিত।’
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে গোল্ডেন এজ হোম কেয়ারের কর্ণধার শাহনেওয়াজ বলেন, আমেরিকায় বাংলাদেশিরা স্বতন্ত্র একটি অবস্থান তৈরি করতে পেরেছে। টাইম স্কয়ারের বিশাল এই আয়োজনের মাধ্যমে আমরা বিশ্ববাসীকে বাঙালি সংস্কৃতি সম্পর্কে জানাতে পেরেছি। আয়োজক সংগঠনের সভাপতি বিশ্বজিত সাহা বলেন,‘ গত বছর আমরা শত কন্ঠে নতুন বছরকে বরণ করেছিলাম, এবার হয়েছে সহস্র কন্ঠে। এ আনন্দ আয়োজন অব্যাহত থাকবে। গত তিন মাস ধরে মহিতোষ তালুকদার তাপসের নেতৃত্বে মহড়া হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য থেকে শিল্পী এবং দর্শনার্থীরা অংশগ্রহণ করেছেন। আবহমান বাংলার ঐহিত্যবাহী সংস্কৃতি, নাচ গান ও যাত্রাপালা, কোন কিছুই বাদ ছিল না আমাদের আয়োজন।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments