করোনা সংকটকালে সুবিধাবঞ্চিতদের জন্য ‘নগদ’র মাধ্যমে জাকাতের অর্থ দেওয়া যাবে। হতদরিদ্রদের পাশে দাঁড়াতে নগদ অ্যাপসের মাধ্যমে এ কার্যক্রমে যে কেউ অংশ নিতে পারবেন। ‘নগদ’র আয়োজনে ‘মানুষ বাঁচলে দেশ বাঁচবে’ ফেসবুক লাইভ অনুষ্ঠানে শুক্রবার বিকালে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন নগদের পরিচালক, এমডি এবং সিইও-এর উপদেষ্টা রেজাউল হোসেন ও সেন্টার ফর জাকাত ম্যানেজমেন্টের সিইও ড. মোহাম্মদ আইয়ুব মিয়া। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন আরজে নীরব। নগদ, যুগান্তর ও যমুনা টিভির ফেসবুক পেজে লাইভটি দেখানো হয়।

রেজাউল হোসেন বলেন, আমাদের ধর্ম অনুসারে মানুষের সঞ্চয়ের একটি অংশ তাদের দিতে হবে। এ প্রক্রিয়ার সঙ্গে আমাদের অংশগ্রহণের জন্যই নগদের এই প্ল্যাটফর্মটা। সঞ্চয়ের একটি অংশ মানুষ নগদের মাধ্যমে জাকাত কো-অর্ডিনেশনে যারা কাজ করেন তাদের কাছে টাকাটা পৌঁছে দেওয়া নম্ভব। অনেকের জাকাত দেওয়ার ইচ্ছা থাকলে সুযোগ নেই। তিনি জানেন না যে কোথায় টাকাটা দিলে যথাযথ ব্যবহার হবে। আমরা সবাই একত্রে কাজ করলে জাকাতের প্রকৃত সুবিধাবঞ্চিতরা সুবিধা পেয়ে স্বাবলম্বী অবস্থায় চলে যেতে পারবে।

সেন্টার ফর জাকাত ম্যানেজমেন্টের (সিজেডএম) সিইও ড. মোহাম্মদ আইয়ুব মিয়া বলেন, জাকাত একটি ধর্মীয় ইবাদত। বছর শেষে মানুষের মৌলিক চাহিদা পূরণের পর যে অতিরিক্ত অর্থ থাকবে, সেখান থেকে আড়াই শতাংশ জাকাত দিতে হবে। অনেকেই যেটা ভুল করেন, তা হলো সঠিক গণনা করেন না। আল্লাহ আপনাকে ১০০ টাকা দিয়েছেন, সেখানে আপনি ৯৭ টাকা ৫০ পয়সার মালিক। বাকি আড়াই টাকার মালিক আপনি না। এটা আল্লাহ আপনাকে দিয়েছেন আপনার যোগ্যতার কারণে। কিন্তু আপনাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে যারা দরিদ্র তাদের সহায়তার করার জন্য।

নগদের মাধ্যমে সেন্টার ফর জাকাত ম্যানেজমেন্টে ডোনেশন করার পদ্ধতি : ‘নগদ’ অ্যাপে প্রবেশ করুন > ‘ডোনেশন’ বাটনে ক্লিক করুন > লিস্ট থেকে ‘সেন্টার ফর জাকাত ম্যানেজমেন্ট’ নির্বাচন করুন > আপনার ডোনেশনের পরিমাণ দিন > পিন নাম্বার দিন > ডোনেশন সম্পূর্ণ করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

English