Saturday, January 22, 2022
spot_img
Homeজাতীয়ধোঁকা দিতে আবারো সংলাপের নামে ফাঁদ: চরমোনাই পীর

ধোঁকা দিতে আবারো সংলাপের নামে ফাঁদ: চরমোনাই পীর

সরকারের উদ্দেশে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর ও চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ ফয়জুল করীম বলেছেন, নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন করার যখন সময় এসেছে। আবার তামাশা শুরু করেছে। ধোঁকা দেওয়ার জন্য আবারো একটা ফাঁদ তৈরি করেছে সংলাপের নামে। আমরা পরিষ্কার বলতে চাই, এই ধরনের সংলাপ ধোঁকাবাজি।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর গুলিস্তান কাজী বশির মিলনায়তনে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের উদ্যোগে আয়োজিত কেন্দ্রীয় সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

মুফতি সৈয়দ ফয়জুল করীম বলেন, গত জাতীয় নির্বাচনের আগে নির্বাচন কমিশন গঠন করা হয়েছিল। তখন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের দায়িত্বশীলদের ডাকা হয়েছিল। প্রেসিডেন্ট নিরপক্ষ তাই আমরা তার ডাকা সংলাপে অংশ নিয়েছিলাম। আমরা সেখানে প্রস্তাব রেখেছিলাম। কিন্তু দুঃখ হয়, কষ্ট হয়- সংলাপের নামে তামাশা দেখানোর জন্য আমাদেরকে সেখানে ডেকে অপমানিত করবেন, লজ্জা দেবেন। রাস্তার খড় কুটার মতো মনে করবেন। বাংলাদেশের সর্বোচ্চ ক্ষমতার অধিকারী প্রেসিডেন্টের কাছে আমরা সেটা কখনো মেনে নিতে পারিনি।

নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য নিবন্ধিত বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে ২০ ডিসেম্বর থেকে সংলাপ করছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ।

চরমোনাই পীর আরও বলেন, বাংলাদেশের সচেতন নাগরিক, দেশের সচেতন রাজনৈতিক ব্যক্তিরা সংলাপকে পছন্দ করে না, গ্রহণ করে না। আমরা তাদের ধিক্কার জানাই বিগত সময়ে যারা কলঙ্কিত নির্বাচন করেছে। আমাদের দুঃখ, আজকে বাংলাদেশের মানুষ মাথা উঁচু করে কথা বলার মতো বড়গলা থাকে না।

সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন কমিশন গঠনের আহ্বান জানিয়ে চরমোনাই পীর বলেন, আমরা সরকার এবং প্রেসিডেন্টকে বলব- সংবিধানের যে পদ্ধতি রয়েছে, যে আইন রয়েছে, সে নিয়ম অনুযায়ী ইসি গঠন করুন। যাতে নতুন নির্বাচন কমিশন যারাই আসে তারা যেন সম্পূর্ণ নিরপেক্ষ হয়। এটা আমাদের পক্ষ থেকে প্রস্তাব থাকবে। আর আমরা সংলাপে যাব কি যাব না, সেটা পরবর্তীতে সংবাদ সম্মেলন করে জানানো হবে।

সম্মেলনে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের নাম পরিবর্তন করে ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশ নতুন নাম ঘোষণা করেন চরমোনাই পীর। এ সময় তিনি দলের ছাত্র সংগঠনের নতুন কমিটির তিন নেতার নাম ঘোষণা করেন। সভাপতি পদে নুরুল করিম আকরাম, সিনিয়র সহসভাপতি শরিফুল ইসলাম রিয়াদ এবং সেক্রেটারি জেনারেল পদে শেখ মো. আল আমিনের নাম ঘোষণা করেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর।

সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন- ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতি সৈয়দ ফয়জুল করিম, মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুস আহমেদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল মাদানী, খন্দকার গোলাম মাওলা, আশরাফ আলি আকন্দ, অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, যুগ্ম মহাসচিব গাজী আতাউর রহমান, তথ্য উপদেষ্টা মাওলানা ওবায়দুর রহমান প্রমুখ।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments