Monday, May 27, 2024
spot_img
Homeআন্তর্জাতিক‘দুর্নীতির’ অর্থ: কলকাতায় একের পর এক বাড়িতে তল্লাশি

‘দুর্নীতির’ অর্থ: কলকাতায় একের পর এক বাড়িতে তল্লাশি

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কথিত দুর্নীতির অভিযোগে তার ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিতদের বাড়িতে একের পর এক তল্লাশি চলছে।

বুধবার পার্থর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বেলঘরিয়ার ফ্ল্র্যাটের পরই বালিগঞ্জের এক বাড়িতে অভিযান চালায় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ইডি।

বুধবার রাতে ইডি সূত্রের খবর, কলকাতার ৮ নম্বর বালিগঞ্জ প্লেস ইস্টে একটি বাড়িতে নজর রয়েছে তাদের। বুধবার সেই বাড়িতে ঢুকে একটি তালাবন্ধ লকার দেখতে পান তদন্তকারীরা।

কী আছে লকারে তা জানতে তালা খোলার চেষ্টা চালাচ্ছেন ইডির তদন্তকারীরা। আনা হয়েছে তালা ভাঙার জিনিসপত্র।

এর আগে বুধবার সকালে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বেলঘরিয়ার রথতলার ফ্ল্যাটে অভিযান চালায় ইডি। সেখানেও অনেক নগদ অর্থ উদ্ধার হয়েছে বলে একটি সূত্রের দাবি। টাকা গুণতে গণনার যন্ত্র নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

এ দিন সকাল থেকেই ইডির একাধিক দল কলকাতা শহরের বিভিন্ন দিকে অভিযান চালাতে শুরু করে। একটি দল যায় বেলঘরিয়ার আব্দুল লতিফ স্ট্রিটে অর্পিতার পৈতৃক বাড়িতে। সেখানে থাকেন অর্পিতার মা। তিনি প্রথমে ইডির কর্মকর্তাদের বাড়িতে ঢুকতে দিতে অস্বীকার করেন। পরে অবশ্য ইডি সেখানে তল্লাশি চালায়।

বেলা ১২টা নাগাদ বেলঘরিয়ার ক্লাব টাউন আবাসনে অর্পিতার ফ্ল্যাটের সামনে পৌঁছান ইডি কর্মকর্তারা। কিন্তু ফ্ল্যাটটি তালাবন্ধ অবস্থায় ছিল। চাবির খোঁজ না মেলায় ডাকা হয় এক তালাচাবিওয়ালাকে। ঘণ্টাখানেক চেষ্টা করার পরও তিনি দরজা খুলতে ব্যর্থ হওয়ায় তালা ভেঙে ফেলেন তদন্তকারীরা। বিকেল নাগাদ খবর পাওয়া যায়, ওই ফ্ল্যাটে নগদ অর্থের হদিস পাওয়া গিয়েছে। ব্যাঙ্ক কর্মীদের একটি দল নোট গোনার মেশিন নিয়ে পৌেঁছ যান অকুস্থলে।

প্রসঙ্গত, গত  শুক্রবার কলকাতার টালিগঞ্জের একটি অভিজাত আবাসনে অর্পিতার ফ্ল্যাট থেকে নগদ ২১ কোটি রুপি ও গয়না, বিদেশি মুদ্রা উদ্ধার করে ইডি। এ অর্থের সঙ্গে শিক্ষক নিয়োগে কথিত দুর্নীতির যোগসূত্র আছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments