Monday, May 27, 2024
spot_img
Homeজাতীয়ঢাবিতে বাম সংগঠনের ওপর ছাত্রলীগের হামলার অভিযোগ, আহত ৭

ঢাবিতে বাম সংগঠনের ওপর ছাত্রলীগের হামলার অভিযোগ, আহত ৭

সীতাকুণ্ডে অগ্নিকাণ্ড নিয়ে ঢাকার শাহবাগে বামপন্থী ছাত্র সংগঠনগুলোর বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে ফেরার পথে চারুকলা অনুষদের সামনে তাদের ওপর হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের কিছু নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে।

আজ সোমবার সন্ধ্যায় ছাত্র ইউনিয়ন (একাংশ), সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট ও ছাত্র ফেডারেশনসহ আটটি বামপন্থী সংগঠনের জোট ‘প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনসমূহ’ এই ব্যানারে শাহবাগে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সালমান সিদ্দিকী দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, সীতাকুণ্ডে অগ্নিকাণ্ডের প্রতিবাদে শাহবাগে সমাবেশ শেষে মিছিল নিয়ে ক্যাম্পাসে ফেরার পথে ছাত্রলীগের ৮-১০ জন নেতা-কর্মী আমাদের ওপর হামলা চালায়। এতে আমাদের ৭ জন আহত হয়েছেন।

আহতদের মধ্যে ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি অনিক রায়, অন্তু রায়, ঢাবি শাখা ছাত্র ফ্রন্টের প্রচার সম্পাদক মোজাম্মেল হক, মাহমুদুল হাসান অর্ণব, নাহিয়ান রাহাত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন বলে জানান সালমান সিদ্দিকী। এদের মধ্যে অনিক রায়ের মাথায় সাতটি সেলাই পড়েছে।

আহত অনিক রায় দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, চারুকলা অনুষদের ফটকের বিপরীত পাশে রাস্তায় তিনটি অ্যাম্বুলেন্স আটাকা পড়েছিল। অ্যাম্বুলেন্সগুলো বের করে দেওয়ার জন্য সেখানে রাস্তার পাশে পার্ক করে রাখা কয়েকটি মোরটরসাইকেল আমরা সরিয়ে রাখি। ওই মোটরসাইকেলগুলো ছিল ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের। পাশের চায়ের দোকান থেকে এসে তারা আমাদের সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়ায় ও এক পর্যায়ে ইটপাটকেল ছুড়তে থাকে।

হামলার অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে ঢাবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, আমি জানতে পেরেছি যে বামপন্থীদের মিছিলের কারণে কয়েকটি অ্যাম্বুলেন্স আটকা পড়েছিল। সেখানে মোটরসাইকেলে থাকা সুর্যসেন হলের সুজনসহ দুইজন সাধারণ শিক্ষার্থী অ্যাম্বুলেন্সগুলোকে ছেড়ে দিতে বললে তাদের মারধর করা হয়। এর পর আরও কিছু শিক্ষার্থী সেখানে এসে মারধরের কারণ জানতে চায় ও একটি অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটে।

সূর্যসেন হলের সূত্রগুলো জানায়, হামলকারীদের মধ্যে থাকা সুজনের পুরো নাম মারুফ সুজন। তিনি হল শাখা ছাত্রলীগের সক্রিয় কর্মী। এর আগে ক্যাম্পাসে আরও কয়েকটি মারপিটের ঘটনায় তার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments