Sunday, June 16, 2024
spot_img
Homeআন্তর্জাতিকজার্মানির নুরেমবার্গে ১০০০ মানুষের গণকবরের সন্ধান

জার্মানির নুরেমবার্গে ১০০০ মানুষের গণকবরের সন্ধান

জার্মানির নুরেমবার্গে বিশাল এক গণকবরের সন্ধান মিলেছে। তাতে পাওয়া গেছে কমপক্ষে এক হাজার মৃতদেহাবশেষ।  প্রত্নতত্ত্ববিদরা সেখানে খনন করে এই গণকবরের সন্ধান পান। একে বলা হচ্ছে ইউরোপের সবচেয়ে বড় গণকবর। বিবিসিকে উদ্ধৃত করে এ খবর দিয়েছে অনলাইন জিও নিউজ। বলা হয়েছে, ওই শহরে নতুন আবাসিক ভবন নির্মাণের আগে মাটি খনন করেন প্রত্নতত্ত্ববিদরা। তাদের জরিপ ও খননকাজে বেরিয়ে আসে এসব তথ্য। আটটি গর্তে পাওয়া যায় এসব মৃতদেহ। ধারণা করা হয়, ওইসব গর্তে ১৫০০ পর্যন্ত মৃতদেহ রাখা হয়েছিল। এসব মৃতদেহকে সমাধিস্থলে সমাহিত করা হয়নি।

নুরেমবার্গে প্লেগের মতো এপিডেমিক আঘাত করার আগেই এই মানুষগুলোকে সমাহিত করা হয়। এমন তথ্য দিয়েছেন নুরেমবার্গ ডিপার্টমেন্ট অব হেরিটেজ প্রিজারভেশনের মেলানি ল্যাংবেইন। চতুর্দশ শতাব্দীর পর প্রতিটি দশকে নুরেমবার্গে দেখা দেয় প্লেগ। ফলে মৃত ব্যক্তিদের সমাহিত করা একটি চ্যালেঞ্জ হয়ে পড়েছিল। রেডিওকার্বন পরীক্ষায় দেখা গেছে এর মধ্যে একটি গণকবরের সময়কাল হতে পারে ১৪০০র দশক ও ১৬০০র দশকের শুরুর দিকে। যেসব আর্টিফ্যাক্ট ও ডকুমেন্ট পাওয়া গেছে ১৬৩৪ সালের প্লেগের সময়কালের তাতে দেখা যায়, এসব প্রাচীন জিনিসপত্র ১৬৩২ থেকে ১৬৩৩ সময়কালের এপিডেমিকের সময়কার। জুলিয়ান ডেকার নামের প্রত্নতত্ত্ববিদ অস্বাভাবিকভাবে এই গণকবর আবিষ্কার করেন। তিনি এর পুরোটা দেখাশোনা করছেন। বলেছেন, এই গণকবরে সমাহিত করা মানুষের সংখ্যা দুই হাজার ছাড়িয়ে যেতে পারে। এর মধ্য দিয়ে এটি হবে ইউরোপের সবচেয়ে বড় গণকবর।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments