Sunday, August 14, 2022
spot_img
Homeআন্তর্জাতিকজাওয়াহিরিকে হত্যায় পাকিস্তানের ভূমিকা ছিল?

জাওয়াহিরিকে হত্যায় পাকিস্তানের ভূমিকা ছিল?

কাবুলে আল কায়েদা নেতা আয়মান আল জাওয়াহিরিকে হত্যা করা আমেরিকান ড্রোনটি সম্ভবত কিরগিজস্তানের একটি বিমানঘাঁটি থেকে উৎক্ষেপণ করা হয়েছিল, বুধবার কিছু মার্কিন সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে।

প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে যে, উত্তর কিরগিজস্তানের মানসে মার্কিন ট্রানজিট সুবিধার জন্য ব্যবহৃত গান্সি এয়ারবেস থেকে হামলা চালানো হয়েছিল। মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগের মতে, বিশকেক আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে কিরগিজস্তানে গান্সি একটি প্রাক্তন আমেরিকান সামরিক ঘাঁটি। এটি ইউএস এয়ার ফোর্স দ্বারা পরিচালিত হয়েছিল, যা জুন ২০১৪ এ কিরগিজ সামরিক বাহিনীর কাছে হস্তান্তর করেছিল।

মার্কিন প্রশাসন অবশ্য এখনও ড্রোন কোথা থেকে উড্ডয়ন করেছে এবং কোন রুট ব্যবহার করেছে তা প্রকাশ করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। প্রতিরক্ষা বিভাগ শুধুমাত্র একটি সংক্ষিপ্ত বিবৃতি জারি করে বলেছে, ‘জাওয়াহিরিকে কাবুলের কেন্দ্রস্থলে একটি ওভার-দ্য-হরাইজন অপারেশনে হত্যা করা হয়েছিল, যেখানে তিনি তালেবানের অতিথি হিসাবে বসবাস করছিলেন। রোববার কাবুল সময় সকাল ৬ টা ১৮ মিনিটে একটি নির্ভুল, সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানে দুটি হেলফায়ার ক্ষেপণাস্ত্র দ্বারা তার উপরে আঘাত করা হয়েছিল।’

আমেরিকার বৃহত্তম রেডিও নিউজ নেটওয়ার্ক ন্যাশনাল পাবলিক রেডিও (এনপিআর) উল্লেখ করেছে, মার্কিন কর্মকর্তারা বলছেন না যে, তারা কোথা থেকে ড্রোনটি উৎক্ষেপণ করেছে, ‘তবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিকটবর্তী অঞ্চলে আর কোনো সামরিক ঘাঁটি নেই, ধারণা করা হচ্ছে বিমানটি তার লক্ষ্যে পৌঁছানোর আগে দীর্ঘ দূরত্ব উড়ে গেছে।’

ওয়াশিংটনের উইলসন সেন্টারের দক্ষিণ এশীয় বিষয়ক বিশেষজ্ঞ মাইকেল কুগেলম্যান উল্লেখ করেছেন যে, ড্রোন হামলার এ অভিযানে ‘পাকিস্তানের সম্ভাব্য ভূমিকা’ নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ‘প্রচুর আলোচনা’ তৈরি করেছে। তিনি দাবি করেন, পাকিস্তান এ হামলার জন্য তাদের আকাশপথ ব্যবহার করতে দিয়ে ও তথ্য দিয়ে সহায়তা করেছে।

কুগেলম্যান যুক্তি দিয়ে বলেন, ‘ভূগোল মিথ্যা বলে না। এই ড্রোনটি যদি উপসাগরীয় কোনো মার্কিন ঘাঁটি থেকে উৎক্ষেপণ করা হয়, তাহলে এটি ইরানের ওপর দিয়ে উড়তে পারবে না। মধ্য এশিয়ার উপর দিয়ে বৃত্তাকার পথে উড়ে যাওয়া এর পক্ষে সম্ভব নয়। এটি পাকিস্তানের আকাশসীমাকে গোয়েন্দা সহায়তার জন্য সবচেয়ে পছন্দসই বিকল্প হিসাবে ছেড়ে দেয় এবং মার্কিন কর্মকর্তারা ইঙ্গিত দিয়েছেন যে, এ অপারেশনের পরিকল্পনা এবং নজরদারি কয়েক মাস সময় নিয়েছিল।’

‘তারা কি একাই করতে পারত, মাটিতে উপস্থিতি ছাড়াই?’ তিনি জিজ্ঞাসা করেছিলেন, পাকিস্তান না হলে, ‘কিছু বিদ্রোহী তালেবান সদস্যরা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে এই তথ্য সরবরাহ করতে পারে’। তবে কুগেলম্যান আফগানিস্তানের মধ্য এশিয়ার প্রতিবেশী দেশগুলি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে সেই সমর্থন প্রদানের সম্ভাবনা উড়িয়ে দেন না। সূত্র: ডন।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments