Thursday, February 22, 2024
spot_img
Homeআন্তর্জাতিকচীনে অস্বাভাবিক তুষারপাত: ফ্লাইট বাতিল, স্কুল বন্ধ

চীনে অস্বাভাবিক তুষারপাত: ফ্লাইট বাতিল, স্কুল বন্ধ

প্রত্যাশিত সময়ের আগেই অস্বাভাবিক ঠান্ডা আবহাওয়া এবং তুষারঝড়ের কবলে পড়েছে চীন। যার ফলে উত্তর-পূর্ব চীনের এক বিস্তৃত অংশের মানুষ বিশেষ করে উত্তরের প্রদেশ হেইলংজিয়াং সমস্যায় পড়েছে। হঠাৎ ঠান্ডা পড়ে যাওয়ায়, হেইলংজিয়াংকে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে হয়েছিল। প্রদেশটি ৪৯টি ফ্লাইট বাতিল করেছে। এর জেরে অনেকের ভ্রমণ পরিকল্পনা বাতিল করেছেন। যদিও রাজধানী হারবিনের বিমানবন্দরটি নিয়মিত অপারেশন বজায় রাখতে সক্ষম হয়েছিল। স্থানীয় সরকার এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।হেইলংজিয়াং-এর একটি বিশিষ্ট শহর হারবিন, বেশিরভাগ প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কিন্ডারগার্টেন এবং অফ-ক্যাম্পাস প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান তুষারপাত এবং হিমাঙ্কের তাপমাত্রার কারণে ক্লাস স্থগিত করার কারণে শিক্ষাক্ষেত্রে বাধার সম্মুখীন হয়েছে। 

সরকারের অফিসিয়াল উইচ্যাট অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে এই  কথা জানানো হয়েছে।চীনের আবহাওয়া কর্তৃপক্ষ আগামী দিনে উল্লেখযোগ্য তাপমাত্রা হ্রাসের সতর্কতা জারি করেছে। তুষারঝড়ের সাথে যা বেশ কয়েকটি শহরকে প্রভাবিত করবে বলে আশা করা হচ্ছে। এই আবহাওয়ার সতর্কবার্তা রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে জনসাধারণকে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাইরে  যেতে নিষেধ করা হয়েছে।

বরফ পরিস্কারের কাজে প্রায় ২৪ হাজার মানুষ কাজ করছেন। তুষারপাতের জেরে জিয়ামুসি শহরে একটি জিমনাসিয়ামের একটি অংশ ভেঙে পড়েছে। এতে তিনজন আটকে পড়েছেন। স্থানীয় বাসিন্দারা ওয়েইবোর মতো সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে তাদের বিস্ময় ও অস্বস্তি প্রকাশ করেছেন। হেইলংজিয়াং  লাল সতর্কতা জারি করেছে। এর পাশাপাশি  মঙ্গোলিয়া, হেবেই, জিলিন এবং লিয়াওনিং প্রদেশের কিছু অংশ ভারী তুষারপাতের  কবলে পড়েছে। প্রতিকূল আবহাওয়ার প্রতিক্রিয়ায় লিয়াওনিং এবং জিলিন উভয় প্রদেশকেই স্কুল স্থগিত করতে হয়েছিল। সেন্ট্রাল মেটিওরোলজিক্যাল অবজারভেটরি সতর্ক করেছে যে, অনেক এলাকায় তাপমাত্রা ৬ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমে যাবে, কিছু জায়গায় তাপমাত্রা ১৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসেরও নিচে নেমে যাবে। 

মঙ্গোলিয়ায় তুষারপাতের জেরে মৃত আট পশুপালক। মৃতদের মধ্যে ছয় জন নারী, এক জন পুরুষ ও এক জন ১২ বছরের কিশোর রয়েছে। উত্তর চীন গত সপ্তাহে অস্বাভাবিক এবং বৈপরীত্যপূর্ণ আবহাওয়ার সম্মুখীন হয়েছে, ধোঁয়াশা থেকে শুরু করে দশকের মধ্যে দ্বিতীয় উষ্ণতম অক্টোবর। সেন্ট্রাল মেটিওরোলজিক্যাল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ভবিষ্যদ্বাণী করেছে যে, উত্তর-পূর্ব অঞ্চলের বেশিরভাগ অংশে তাপমাত্রা হিমাঙ্কেরও নিচে নামবে কারণ ঠান্ডা বাতাস পূর্ব ও দক্ষিণ দিকে প্রবাহিত হচ্ছে। নাগরিকদের যতটা সম্ভব সাবধানতা অবলম্বন করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

সূত্র : wionews

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments