Tuesday, May 28, 2024
spot_img
Homeলাইফস্টাইলগরমে কোনটি বেশি উপকারী- ডাবের পানি নাকি লেবুর শরবত?

গরমে কোনটি বেশি উপকারী- ডাবের পানি নাকি লেবুর শরবত?

এই গরমে শরীর ঠান্ডা রাখতে পর্যাপ্ত পানি পানের পাশাপাশি বিশেষজ্ঞরা বিভিন্ন ধরনের পানীয় পানের নির্দেশ দেন। গরমে শরীর ঠান্ডা রাখতে ডাবের তুলনা নেই; কিন্তু ডাবের যে দাম তা কেনা অনেকেরই সাধ্যের বাইরে। এ কারণে অনেকেই বাড়িতে ফিরে লবণ-চিনি দেওয়া লেবুর শরবত খেয়ে ঠান্ডা হতে চেষ্টা করেন। কিন্তু শরীরের আর্দ্রতা বজায় রাখতে কোন পানীয়টি বেশি উপকারী?

পুষ্টিবিদরা বলছেন, ডাবের পানি হল প্রাকৃতিক শক্তিবর্ধক পানীয়। এই পানীয়ের মধ্যে রয়েছে সোডিয়াম, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ক্যালশিয়ামের মতো উপাদান। এসব উপাদান শরীরের আর্দ্রতা বজায় রাখার পাশাপাশি ইলেক্ট্রোলাইটের সমতা বজায় রাখতে সাহায্য করে। এ ছাড়াও ডাবের পানিতে থাকা প্রাকৃতিক শর্করা গরমে ঘেমে ক্লান্ত হলেও তাৎক্ষণিক শক্তি জোগায়। অন্যদিকে লেবুর রস দেওয়া শরবতের গুণও কম নয়। লেবুতে থাকা ভিটামিন সি এবং অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা উন্নত করে।

পুষ্টিবিদরা বলছেন, শরীরের পিএইচের ভারসাম্য রক্ষা করতে লেবুর রস দেওয়া শরবতের জুড়ি নেই।

শরীরের আর্দ্রতা বজায় রাখতে পুষ্টির বিচারে দুটি পানীয়ই উপকারী। শরীরের ইলেক্ট্রোলাইটের ঘাটতি হলে, পটাশিয়ামের অভাবে পেশিতে টান ধরলে, গরমে ঘেমে ক্লান্ত হয়ে পড়লে কিংবা ডিহাইড্রেশনের সমস্যাতেও কাজে দেয় ডাবের পানি।

অন্যদিকে ডাবের পানির মতো শরীরে খনিজের অভাব পূরণ করতে না পারলেও অক্সিডেটিভ স্ট্রেস নিয়ন্ত্রণে রাখে লেবুর শরবত। এই পানীয়টি আর্দ্রতা বজায় রাখতেও সাহায্য করে। কিন্তু, এই পানীয়তে লবণ কিংবা চিনি দেওয়া হয়। এ কারণে উচ্চ রক্তচাপ এবং ডায়াবেটিস রোগীদের লেবুর শরবত খাওয়ার ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। তবে গরমে সতেজ থাকতে দুটি পানীয়ই খাওয়া যেতে পারে। তবে কার শরীরে কী প্রয়োজন, সেই বুঝে পানীয় বেছে নেওয়াই ভালো।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments