Sunday, June 16, 2024
spot_img
Homeবিজ্ঞান ও প্রযুক্তিক্ষেতে কাজ করে টম, ডিক আর হ্যারি

ক্ষেতে কাজ করে টম, ডিক আর হ্যারি

যুক্তরাষ্ট্রে চাষাবাদে ব্যবহার করা হচ্ছে রোবট। এগুলো ক্ষেতের আগাছা নির্মূল থেকে মাটির স্বাস্থ্য রক্ষা এবং বীজ রোপণের কাজগুলো সহজেই করতে পারে। বিস্তারিত জানাচ্ছেন আল সানি

যুক্তরাষ্ট্রের কাছের এক শহরতলির কোনো এক ক্ষেতের পাশ দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় হয়তো আপনার চোখে পড়ে যেতে পারে টম, ডিক ও হ্যারি। বেশ মন দিয়ে কাজ করছে ওরা।

ওদের মূল কাজ ক্ষেতের আগাছা নির্মূল ও বীজ রোপণ। রোদ-বৃষ্টি কোনো ঝামেলাই না ওদের জন্য। কেননা ওরা রোবট যে! ইংল্যান্ডের বাজারের কথা মাথায় রেখে এই রোবটগুলো নিয়ে আসতে চাইছেন দুই উদ্যোক্তা স্টোক ও রবিনসন। রোবটগুলো নিয়ে প্রথম কাজ শুরু ২০১৭ সাল থেকে। তিনটি রোবটকে ভিন্ন ভিন্ন কাজে ব্যবহার উপযোগী করার চেষ্টা করা হচ্ছে সেই তখন থেকেই। এই যেমন ক্ষেতের আগাছা দূর করবে টম, মাটির স্বাস্থ্য রক্ষার দায়িত্ব ডিকের আর আগাছামুক্ত মাটিতে নতুন বীজ রোপণ করবে হ্যারি। যদিও গত বছরের এপ্রিল থেকে রোবট নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান ‘স্মল রোবট কম্পানি’ টমকে পুরোপুরি কাজে লাগিয়ে দিলেও ডিক ও হ্যারিকে এখনো পরীক্ষাগারেই রেখেছে।

আগাছা দূর করার কাজে টমকে প্রথমে একটি প্রগ্রামিংয়ের ভেতর আনতে হয়। ব্যাপারটা অনেকটা এ রকম—আগাছাগুলোকে আপনি লাল দাগ দিয়ে দিলেন আর দরকারি গাছগুলোকে সবুজ। টমের কাজ এখন নিজের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করে লাল দাগের সব গাছগুলোকে সমূলে উৎপাটন করা। একই সঙ্গে এটি প্রয়োজনীয় ডাটাও সংগ্রহ করে থাকে। সংগৃহীত এই ডাটা পরবর্তী সময়ে ব্যবহার করে ডিক। টম প্রতিদিন সব মিলিয়ে প্রায় ৫০ একরের কাছাকাছি জমি থেকে আগাছা দূর করতে পারে।

জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার মতে, ২০১৮ সালে সারা বিশ্বে ৬০ লাখ মেট্রিক টনেরও বেশি কীটনাশক কেনাবেচা হয়েছে। এতে ব্যয় হয়েছে ৩৮ হাজার কোটি ডলার। এসব কীটনাশক  মাটির বেশ ক্ষতি করে থাকে। হুমকিতে পড়ে জীববৈচিত্র্যও। এই ধরনের রোবটকে পরিবেশ ও কৃষকের জন্য আশার আলো বলা যেতেই পারে। নতুন এই প্রযুক্তিতে কৃষকের রাসায়নিক বাবদ খরচ ৪০ শতাংশ ও রাসায়নিকের ব্যবহার ৯৫ শতাংশ কমিয়ে নিয়ে আসতে সক্ষম।

২০২৩ সাল নাগাদ পুরোদমে কাজ শুরু করতে পারবে টম, ডিক ও হ্যারি। পুরোদমে কাজ শুরু করতে পারলে প্রতি হেক্টর জমিতে আগাছা নির্মূল ও বীজ রোপণে খরচ হবে ৫০ হাজার টাকার মতো। ইংল্যান্ডের মতো ক্রমবর্ধমান কৃষিক্ষেত্রে কৃষিকাজের লোকের অপ্রতুলতা ঠেকাতে টম, হ্যারি ও ডিকের মতো রোবট প্রযুক্তির কোনো বিকল্প নেই।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments