Sunday, June 23, 2024
spot_img
Homeআন্তর্জাতিকওমিক্রনে বিপর্যস্ত সুইডেন ও নরওয়ে

ওমিক্রনে বিপর্যস্ত সুইডেন ও নরওয়ে

ইউরোপের অন্যান্য দেশের মতো সুইডেনে সংক্রমণের বিস্তার বর্তমানে উচ্চ পর্যায়ে রয়েছে। গত সাত দিনে গড়ে সংক্রমণের সংখ্যার দিকে তাকালে দেখা যায় প্রতিদিন প্রায় ২৪,৩০০টিরও বেশি সংক্রমণের কেস রাষ্ট্রীয়ভাবে নিশ্চিত করা হয়েছে। সুইডেনে বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরেই সংক্রমণের হার মাত্রাতিরিক্তভাবে বাড়তে থাকে।

আজ মঙ্গলবার স্থানীয় সময় দুপুর ২টায় সুইডেনের জনস্বাস্থ্য সংস্থার পরিসংখ্যানের এক আপডেট অনুসারে জানা যায়, গত শুক্রবার থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত ৯৭,০০০ এরও বেশি নতুন সংক্রমন হয়েছে। কভিড-১৯ এর প্রতিরোধে বিভিন্ন ধরণের পদক্ষেপ নেওয়ার পরেও এত বেশি সংখ্যক সংক্রমনের খবর সরকারকে চিন্তিত করে তুলেছে।

গত সাত দিনের গড় হিসাবে দেখা যায়, প্রতিদিনে নতুন সংক্রমণের সংখ্যা ২৪৬০০ জনেরও বেশি। মাত্র প্রায় এক কোটি মানুষের দেশ সুইডেনে সংক্রমণের মাত্রাতিরিক্ত সংখ্যার কোনো যৌক্তিক ব্যাখ্যাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বলে মত দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

সাত দিনে সর্বোচ্চ সংক্রমণের সংখ্যা ছিল গত বুধবার ২৬০২৪ জন এবং সর্বনিম্ন সংক্রমণ হয়েছিল গতকাল সোমবার ২৩,৬১২ জন। সংক্রমণ বাড়ার পাশাপাশি হাসপাতালগুলোতেও প্রতিদিন কভিড রোগীর সংখ্যা বাড়ছে বলে জানায় সুইডেনের স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

মঙ্গলবার মোট ১,২৭১ জন কভিড-১৯ রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে এবং ১১০ব্যক্তিকে আইসিইউতে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়। তবে গত বছর পরিস্থিতি যখন স্বাস্থ্যসেবার জন্য সবচেয়ে খারাপ ছিল তখন রোগীর সংখ্যা বর্তমানের চেয়েও বেশি ছিল বলে পরিসংখ্যান সংস্থা জানায়।

আজ নরওয়েজিয়ান স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় নরওয়েতে ১১০৩১ জন রোগী করোনা সংক্রমণজনিত কারণে নিবন্ধিত হয়েছে, যা এক সপ্তাহ আগের একই দিনের চেয়ে ৪,৪৯১ বেশি। গত সাত দিনে নরওয়েতে প্রতিদিন গড়ে ১০,৩৫৯ জন কভিড সংক্রমণ নিবন্ধিত হয়েছে। গতকাল সোমবার মোট ২৪০ জন কভিড রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল এবং এর মধ্যে ৭৯ জনকে আইসিইউতে নিবিড় পরিচর্যায় রাখা হয় এবং ৫৫ জনকে শ্বাসযন্ত্রের সাহায্যে চিকিত্সা দেওয়া হয় বলে দেশটির স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়। গত ১৫ জানুয়ারি নরওয়েতে ১২,৩৬০ জন সংক্রমিত হয়েছিল, যা এখন পর্যন্ত এক দিনে সর্বোচ্চ সংখ্যা। ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ পাবলিক হেলথের পরিসংখ্যান অনুসারে নরওয়েতে অদ্যাবধি মোট ৫২৩,৪১৪ জন সংক্রমিত হয়েছে।

২০২০ সালের মার্চ থেকে নরওয়েতে করোনায় মোট ১৩৮২ জন মারা গেছে। নরওয়ের জনসংখ্যা ৫০ লক্ষ ৩০ হাজার। স্ক্যান্ডিনেভিয়া এবং ইউরোপের অন্যান্য দেশের তুলনায় নরওয়ে মহামারি থেকে যথেষ্ঠ ভালো অবস্থানে আছে। নরওয়েতে এখন পর্যন্ত প্রতি ১ লাখ মানুষের মধ্যে মাত্র ২৫ জনের মৃত্যু হয়েছে, যেখানে সুইডেনে প্রতি এক লাখে মৃত্যুর সংখ্যা ১৫০ জন।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments