Wednesday, July 6, 2022
spot_img
Homeজাতীয়‘এদেশে টাকা দিলে মন্ত্রিত্ব পাওয়া যায়’

‘এদেশে টাকা দিলে মন্ত্রিত্ব পাওয়া যায়’

বিএনপির নেতার সঙ্গে আওয়ামী লীগ নেতার ফোনালাপ ভাইরাল

কি করবেন যে দেশে টাকা দিলে নমিনেশন পাওয়া যায়, যে দেশে টাকা দিলে মন্ত্রিত্ব পাওয়া যায়, যে দেশে টাকা দিলে সব আকাম চলে। এমনই কথোপকথনের একটি অডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ভাইরাল হওয়া এ অডিও ক্লিপটি কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রোশন আলী মাস্টার এবং বিএনপি দলীয় দেবিদ্বার উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান রুহুল আমীনের বলে অভিযোগে জানা গেছে। সোমবার মধ্য রাতে দু’দলের দুই নেতার চাঞ্চল্যকর কথোপকথনের এ অডিও বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধমে ভাইরাল হয়ে পড়ে।

অডিওতে শোনা যায়, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বিএনপি নেতার সঙ্গে নিজ দলের বিরুদ্ধে চরম আপত্তিকর কথা-বার্তা বলছেন। এতে কুমিল্লা উত্তর জেলাসহ দেবিদ্বার উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। নেতাকর্মীরা অবিলম্বে রোশন আলী মাস্টারের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান। ফাঁস হওয়া কথোপকথনে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রোশন আলী মাস্টার বিএনপির সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান রহুল আমীনের সঙ্গে বলেন, কি করবেন যে দেশে টাকা দিলে নমিনেশন পাওয়া যায়, যে দেশে টাকা দিলে মন্ত্রিত্ব পাওয়া যায়, যে দেশে টাকা দিলে সব আকাম চলে।আপনারা বিরোধী দল (বিএনপি) শক্ত না, মামলা-হামলার ভয়ে আপনারা মাঠে নামেন না, একচেটিয়া কি একটা দেশ চলে? বিরোধী দল সব সময় স্ট্রং থাকতে হয়, আপনারা (বিএনপি) যদি সুযোগ দেন তাহলে তো অপকর্ম হবেই, যা ইচ্ছা তা-ই হবে, দেশের এই অধঃপতনের জন্য দায়ী হলো আপনাদের বিরোধী দল। আপনারা দেবিদ্বারে কই? কোনো বিএনপি নেতা মাঠে বের হতে পেরেছে? মাঠে নেমে মিছিল মিটিং করেন আমি আপনাদেরকে সুযোগ করে দেই অসুবিধা কি, আমি (বিএনপির সাবেক এমপি মঞ্জুরুল আহসান মুন্সি) মঞ্জু ভাইকে বলেছি, দেশে যান আন্দোলন করেন তাহলে বুঝব আপনারা রাজনীতি করেন। আপনারা তো সময় হলে একটু ই করেন, এগুলো করলে হবে না, রাজনীতি করতে হলে নেতৃত্ব দিতে হবে, নেতৃত্ব দিতে হলে আন্দোলন সংগ্রাম করতে হবে।

এদিকে রোশন আলী মাস্টারের এ অডিও এখন ফেসবুকে ব্যাপক ভাইরাল হয়ে পড়েছে। দলের এত বড় পদে থেকে একজন বিএনপি নেতার সঙ্গে কিভাবে দলের বিরুদ্ধে বিষোদগার করেন এমন প্রশ্ন এখন ঘুরপাক খাচ্ছে। এ বিষয়ে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রোশন আলী মাস্টার বলেন, আমার খণ্ডিত বক্তব্য ভাইরাল করা হয়েছে, পূর্ণাঙ্গ বক্তব্য প্রকাশ হলে বাস্তব চিত্রটা উঠে আসতো।

তিনি দাবি করেন, দেবিদ্বারে বিগত উপজেলা নির্বাচনে যারা মুজিব কোট পরে ধানের শীষের ভোট কেটেছে আমি মূলত তাদের বিরুদ্ধে কথা বলেছি। এ বিষয়ে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ম. রুহুল আমীন বলেন, রোশন আলী মাস্টারের ভাইরাল হওয়া অডিও শুনে আমি নিজেই হতবাক, ওনার মতো একজন দায়িত্বশীল নেতার মুখে এমন আপত্তিকর কথা শুনে আমি খুব কষ্ট পেয়েছি। একজন সিনিয়র নেতার পক্ষে এ ধরনের কথাবার্তা বলা মোটেও সমীচীন নয়।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments