Monday, May 20, 2024
spot_img
Homeধর্মঋণ পরিশোধ না করা আত্মসাতের শামিল

ঋণ পরিশোধ না করা আত্মসাতের শামিল

ঋণ পরিশোধ না করা আত্মসাতের শামিল। যদি পাওনাদার ঋণগ্রহীতাকে মাফ না করে বা ঋণ মওকুফ না করে অথবা ঋণীর ওয়ারিশ সেই ঋণ পরিশোধ না করে, তাহলে কিয়ামতের দিন নেক আমল দানের মাধ্যমে ঋণ পরিশোধ করতে হবে। তবু ঋণ পরিশোধ করতেই হবে। কারণ ঋণের পাপ আল্লাহ ক্ষমা করবেন না।

আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুল (সা.) বলেছেন, ‘কেউ ঋণগ্রস্ত অবস্থায় মারা গেলে (কিয়ামতের দিন) তার সেই ঋণ পরিশোধ করার জন্য কোনো দিনার বা দিরহাম থাকবে না; বরং পাপ ও নেকি অবশিষ্ট থাকবে। ’ (মুসতাদরাক হাকেম, হাদিস : ২২২২)

অর্থাৎ কিয়ামতের ময়দানে নেকির মাধ্যমে হলেও ঋণ পরিশোধ করতে হবে। যদি ঋণী ব্যক্তির কোনো নেকি না থাকে, তাহলে ঋণদাতার পাপ থেকে তার ওপর চাপিয়ে দেওয়া হবে। রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, যে ব্যক্তি তার ভাইয়ের ওপর জুলুম করেছে, সে যেন তার কাছ থেকে ক্ষমা নিয়ে নেয়, তার ভাইয়ের পক্ষে তার নিকট হতে পুণ্য কেটে নেওয়ার আগেই। কারণ সেখানে কোনো দিনার বা দিরহাম পাওয়া যাবে না। তার কাছে যদি পুণ্য না থাকে তবে তার (মাজলুম) ভাইয়ের গুনাহ এনে তার ওপর চাপিয়ে দেওয়া হবে। (বুখারি, হাদিস : ৬৫৩৪; তিরমিজি, হাদিস : ২৪১৯)

সুতরাং মৃত্যুর আগেই এই ভয়াবহ ঋণ থেকে নিজেকে মুক্ত রাখা অবশ্য কর্তব্য।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments