Sunday, May 19, 2024
spot_img
Homeবিনোদনঈদে বিশাল আয়োজনে বর্ণাঢ্য ‘ইত্যাদি’

ঈদে বিশাল আয়োজনে বর্ণাঢ্য ‘ইত্যাদি’

প্রতি বছরের মতো এবারো ঈদে দর্শকদের জন্য বাড়তি আনন্দ নিয়ে আসছে হানিফ সংকেতের ইত্যাদি। পর্বটি ধারণ করা হয়েছে মিরপুর শহীদ সোহ্‌রাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে। এবারো ইত্যাদি শুরু হয়েছে- ‘ও মন রমজানের ওই রোজার শেষে এলো খুশির ঈদ’ গানটি দিয়ে। পরিবেশনায় ছিলেন প্রখ্যাত নজরুল সংগীত শিল্পীদের সঙ্গে এই প্রজন্মের প্রায় ৩৫ জন নজরুল সংগীত শিল্পী। এ ছাড়াও দুই শতাধিক শিক্ষার্থী একই রকম পোশাক ও রঙবেরঙয়ের উপকরণ নিয়ে এর চিত্রায়ণে অংশ নিয়েছে। ঈদ ইত্যাদিতে ‘জীবনের সব সুখ’ শিরোনামে বাপ্পা মজুমদারের সঙ্গে একটি গানে কণ্ঠ দিয়েছেন ইমরান মাহমুদুল। ‘রঙে রঙে রঙিন হবো’ শিরোনামের গানে কণ্ঠ দিয়েছেন সংগীতশিল্পী তাহসান খান এবং অভিনেত্রী তাসনিয়া ফারিণ। বাপ্পা-ইমরানের গানটির কথা লিটন অধিকারী রিন্টু ও তাহসান-ফারিণের গানটির কথা লিখেছেন কবির বকুল। দুটিরই সুর ও সংগীত ইমরানের করা। ইত্যাদিতে ফোক ও আধুনিক এই দুই ধারার সমন্বয়ে তৈরি একটি গানে কণ্ঠ দিয়েছেন প্রতীক হাসান ও প্রীতম হাসান।

কবির বকুলের কথায় এর সুর ও সংগীত করেছেন প্রীতম। গানটিতে আরও অংশ নিয়েছেন ৮ জন তরুণ বিট বক্সার। ইত্যাদিই একমাত্র অনুষ্ঠান যেখানে নাচের প্রচলিত ধারার বাইরে বিষয়ভিত্তিক নাচ করা হয়।

এবারের বিষয় সেকাল আর একালের বিয়ে। নাচটি পরিবেশন করেন খ্যাতিমান নৃত্যজুটি শিবলী মোহাম্মদ ও শামীম আরা নিপা। সঙ্গে ছিলেন দেড় শতাধিক নৃত্য ও অভিনয়শিল্পী। সার্বিক তত্ত্বাবধানে হানিফ সংকেত। এ পর্বে রয়েছে দুটি বক্তব্যধর্মী মিউজিক্যাল ড্রামা। একটিতে চারজন অভিভাবকের চরিত্রে অভিনয় করেছেন শহীদুজ্জামান সেলিম, আজিজুল হাকিম, সাবেরী আলম এবং আল মামুন। অন্য মিউজিক্যাল ড্রামায় স্বামী-স্ত্রীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইন্তেখাব দিনার ও সারিকা সাবরিন।  ভাড়াটিয়া ও বাড়িওয়ালা শিরোনামে মজাদার নাটিকায় অংশ নিয়েছেন অভিনেতা মীর সাব্বির এবং নাসির উদ্দিন খান। তথাকথিত ভাইরাল সেলিব্রেটিদের বিভিন্ন কার্যকলাপ নিয়ে একটি নাটিকায় অভিনয় করেছেন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ক’জন নাট্যপ্রেমী শিক্ষার্থী, পর্বটি পরিচালনা করেছেন তানিয়া আহমেদ। মোবাইলের বিভিন্ন অ্যাপসের ব্যবহার নিয়ে তৈরি হয়েছে এবারের দলীয় সংগীত। অংশগ্রহণ করেছেন সিয়াম আহমেদ এবং মেহজাবীন চৌধুরী।

গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন পুলক ও স্মরণ। দুই যুগ ধরে ইত্যাদিতে বিদেশি নাগরিকদের দিয়েও আমাদের লোকজ সংস্কৃতি, বিভিন্ন গ্রামীণ খেলাধুলা, ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে নিয়মিতভাবে তুলে ধরা হচ্ছে। নাচ-গান ও গ্রামীণ জীবনের সমস্যা নিয়ে তুখোড় অভিনয় সমৃদ্ধ এবারের পর্বের বিষয় কী তা ইত্যাদির প্রচারের সময়ই জানা যাবে। এবার ব্যতিক্রমী উপকরণের মাধ্যমে নির্বাচিত ৩ জন দর্শকের মুখোমুখি হয়েছেন বরেণ্য অভিনেতা আবুল হায়াৎ। এবার ঈদেও রয়েছে নাতি আর নানি, শোনা যাবে নাতির ভুল ধরার বাণী। রয়েছে ঈদকে ঘিরে ডজনখানেক বিদ্রূপাত্মক রসালো নাট্যাংশ। ইত্যাদির শিল্প নির্দেশনা করেছেন মুকিমূল আনোয়ার মুকিম। পরিচালকের সহকারী ছিলেন রানা সরকার ও মামুন মোহাম্মদ। ইত্যাদি রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। নির্মাণ করেছে ফাগুন অডিও ভিশন, স্পন্সর করেছে কেয়া কসমেটিকস লিমিটেড। ঈদের বিশেষ ইত্যাদি একযোগে বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে প্রচার হবে ঈদের পরদিন রাত ০৮ টার বাংলা সংবাদের পর।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments