Sunday, June 16, 2024
spot_img
Homeধর্মইসলামে যে ধরনের ব্যবসায় নিরুৎসাহিত করা হয়েছে

ইসলামে যে ধরনের ব্যবসায় নিরুৎসাহিত করা হয়েছে

মহান আল্লাহ মদ, মৃত প্রাণী, রক্ত, প্রতিমা, শূকরের গোশত প্রভৃতি হারাম করেছেন। তিনি বলেন, ‘তোমাদের প্রতি মৃত প্রাণী, রক্ত, শূকরের গোশত হারাম করা হয়েছে।’ (সুরা : মায়িদা, আয়াত : ৩)

অন্য আয়াতে আল্লাহ বলেন, ‘হে ঈমানদাররা! নিশ্চয়ই মদ, জুয়া, প্রতিমা এবং ভাগ্য নির্ধারক শরসমূহ শয়তানের অপবিত্র কাজ ছাড়া কিছু নয়। অতএব, এগুলো থেকে বিরত থাকো, যাতে তোমরা সফল হও।

’ (সুরা : মায়িদা, আয়াত : ৯০)আর মহান আল্লাহ যেসব দ্রব্য হারাম করেছেন, সেসব দ্রব্যের ব্যবসাও হারাম। জাবির ইবনে আবদুল্লাহ (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি রাসুলুল্লাহ (সা.)-কে মক্কা বিজয়ের বছর এবং মক্কায় থাকা অবস্থায় বলতে শুনেছেন—নিশ্চয়ই আল্লাহ ও তাঁর রাসুল মদ, মৃতদেহ, শূকর ও প্রতিমা বেচাকেনা হারাম করেছেন। তখন বলা হলো, হে আল্লাহর রাসুল (সা.)! আপনি কি মনে করেন যে লোকেরা মৃত পশুর চর্বি দ্বারা নৌকায় প্রলেপ দেয়, তা দিয়ে চামড়ায় বার্নিশ করে এবং লোকেরা তা চকচকে করার কাজে ব্যবহার করে? তখন তিনি বলেন, না, তা হারাম। অতঃপর তিনি বলেন, আল্লাহ তাআলা ইহুদিদের নিশ্চিহ্ন করে দেন।

কারণ মহান আল্লাহ তাদের জন্য চর্বি হারাম করেছেন, অথচ তারা একে গলিয়ে নেয় এবং তা বিক্রি করে ও তার মূল্য ভক্ষণ করে। (বুখারি, হাদিস : ২২৩৬)অন্য হাদিসে রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, আল্লাহ লানত বর্ষণ করেন মদের ওপর এবং যে তা পান করে, যে তা পরিবেশন করে, যে তা বিক্রি করে, যে তা ক্রয় করে, যে তার নির্যাস তৈরি করে, যার জন্য নির্যাস তৈরি করা হয়, যে তা বহন করে আর যার কাছে বহন করে নিয়ে যাওয়া হয় সবার ওপর। (আবু দাউদ, হাদিস : ৩৬৭৪)

একই কারণে মৃত প্রাণীর ব্যবসা। হালাল প্রাণীর মধ্য থেকে শুধু জবেহকৃত প্রাণী খাওয়া ও বিক্রয় করা বৈধ।

অন্যদিকে (মাছ ছাড়া) বৈধ পন্থায় জবেহ বা শিকার করা ছাড়া যেসব প্রাণী মৃত্যুবরণ করে, যেসব প্রাণীর গোশত খাওয়া, বিক্রয় করা এবং তা থেকে অন্য কোনো উপায়ে উপকার লাভ করা তিনি হারাম করেছেন। এ বিষয়ে রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেন, নিশ্চয়ই অল্লাহ তাআলা মদ ও তার মূল্য, মৃত ও তার মূল্য এবং শূকর ও তার মূল্যকে হারাম করে দিয়েছেন। (তারগিব ওয়াত তারহিব, হাদিস : ২৩৫৮) 

একইভাবে মূর্তি ও ছবি শিরকের উৎপত্তিস্থল হওয়ার কারণে মুসলমানদের জন্য কোনো ধরনের মূর্তি বা ছবি তৈরি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এর সব উপার্জন মুসলমানদের জন্য হারাম করা হয়েছে। হাদিসে এসেছে, রাসুলুল্লাহ (সা.) কুকুর ও রক্তের মূল্য এবং ব্যভিচারের উপার্জন গ্রহণ করা থেকে নিষেধ করেছেন।

আর দেহে দাগ দেওয়া বা নেওয়া তথা উল্কি করা থেকে নিষেধ করেছেন। এবং সুদ দেওয়া ও সুদ খাওয়া থেকে নিষেধ করেছেন। আর মূর্তি (বা ছবি) নির্মাতাকে অভিশাপ দিয়েছেন। (বুখারি, হাদিস : ২০৮৬)
RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments